বর্ধমানের মেমারিতে করোনা পজিটিভ যুবকের সন্ধান

আমাদের ভারত, বর্ধমান, ৮ মে : এবার পূর্ব বর্ধমান জেলার মেমারিতে এক যুবক করোনায় আক্রান্ত হলেন। তাকে দুর্গাপুরের সনকা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পূর্ব বর্ধমানের জেলাশাসক বিজয় ভারতী বলেন, ওই যুবক অসুস্থ হয়ে কলকাতায় ভর্তি ছিলেন। দুদিন আগে তাকে ছুটি দেওয়া হয়। এদিন বিকালে তার রিপোর্ট পজিটিভ আসে।

জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, ওই যুবক কলকাতায় একটা হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। সেখানে তার অপারেশন হয়। সে ৬ মে বাড়ি ফিরে আসে। তার কিছু করোনার লক্ষ্মণ দেখা দেওয়ায় তার নমুনা সংগ্রহ করা হয়। আজ বিকেলে তার রিপোর্ট পজিটিভ আসে। ওই এলাকাটিকে কন্টেইনমেন্ট জোন হিসেবে ঘোষণা করে বাঁশের ব্যারিকেড দিয়ে ঘিরে ফেলা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, এখনো পর্যন্ত পূর্ব বর্ধমান জেলায় মোট চারজন করোনায় আক্রান্ত হলেন। জেলায় প্রথম আক্রান্ত ধরা পড়ে খণ্ডঘোষে। যে ব্যক্তি করোনায় আক্রান্ত হন তার ভাইঝিও করোনায় আক্রান্ত হয়েছিল। দুর্গাপুরের কোভিড হাসপাতালে ভর্তি থাকার পর তারা দুজনেই সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। এখন সেখানে ভর্তি আছেন বর্ধমান শহরের সুভাষপল্লি এলাকার একজন নার্স।

পূর্ব বর্ধমান জেলার জেলাশাসক বিজয় ভারতী জানান, কলকাতা থেকে আসা ওই যুবকের রিপোর্ট করোনা পজিটিভ মেলায় তাকে দুর্গাপুরের সনকা কোভিড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তার সংস্পর্শে আসা ৫ জনকে কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে পাঠানো হয়েছে। তিনি বলেন, এখনও পর্যন্ত পূর্ব বর্ধমান জেলায় মোট চারজন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

বর্ধমান দক্ষিণের এসডিপিও আমিনুল ইসলাম খান বলেন, ইতিমধ্যেই ওই এলাকাকে কন্টেইনমেন্ট জোন হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। আগামী ২১ দিন ওই এলাকায় কেউ ঢুকতে বা বেরোতে পারবে না। এলাকাটিকে বাঁশের ব্যারিকেড দিয়ে ঘিরে ফেলা হয়েছে। দমকলের পক্ষ থেকে ওই এলাকা স্যানিটাইজ করা হচ্ছে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here