কমছে না সংক্রমন ! দেশে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ১২ হাজারের উপর , মৃত ৪১৪

আমাদের ভারত, ১৬ এপ্রিল: করোনা সংক্রমণ মোকাবিলায় দেশের দ্বিতীয় দফায় ১৯ দিনের লকডাউন ঘোষণা করেছে মোদী সরকার। কিন্তু তাতেও সংক্রমণের কার্ভ লাইন নিচে নামছে না। প্রতিদিনই বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতের নতুন করে করোনা আক্রান্ত হয়েছে ৯৪১ জন। এর ফলে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১২৩৮০ হল। একই সঙ্গে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত্যু হয়েছে ৩৭ জনের। ফলে দেশে করোনায় মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৪১৪। বৃহস্পতিবার সাংবাদিক সম্মেলন করে দেশে করোনা পরিস্থিতি নিয়ে এই তথ্যই দেওয়া হয়েছে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের তরফে। তবে তার সঙ্গে সুখবর ২৪ ঘন্টায় সংক্রমণ থেকে সুস্থ হয়েছেন ১৮৩ জন।

একদিকে যেমন করোনা সংক্রমনের কার্ভ লাইন ঊর্ধ্বমুখী হওয়ায় দুশ্চিন্তা বাড়ছে তেমনি, সুখবর হচ্ছে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যসচিব লব আগারওয়ালের দেওয়া পরিসংখ্যান বলছে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনিয় সংক্রমণ থেকে সুস্থ হয়েছেন ১৮৩ জন। এখনো পর্যন্ত দেশে করোনা সংক্রমণ থেকে সুস্থ হয়ে ওঠা মানুষের সংখ্যা ১৪১৪ জন। স্বাস্থ্যমন্ত্রকের তরফ নির্দেশনামা জারি করে বলা হয়েছে করোনা চিকিৎসার জন্য যেনো কোন ক্রনিক অসুখের চিকিৎসা কোনভাবে বিঘ্নিত না হয়। জরুরী ওষুধ পেতে যেনো কোন অসুবিধা না হয়। অনেক জায়গাতেই কোন রোগে্য চিকিৎসার জন্য অন্যান্য রোগীরা হয়রানির শিকার হচ্ছেন বলে অভিযোগ আসছে। একইসঙ্গে লকডাউনের কারণে দোকানে ওষুধ পাওয়া যাচ্ছে না বলেও অভিযোগ আসছে। স্বাস্থ্য সচিব লভ আগারওয়াল এদিন বলেছেন, ৩মে পর্যন্ত লকডাউন নিজেদের স্বার্থে মেনে চলতে হবে। করোনা সংক্রমণ আটকাতে কোনোভাবেই কোনো ভিড় বা জমায়েতে করা যাবে না। এক জায়গায় পাঁচ থেকে সাত জনের বেশি থাকা যাবে না। বাইরে বের হলে অবশ্যই মাস্ক পড়তে হবে। একই সঙ্গে মারন ভাইরাস ছড়িয়ে পড়া আটকাতে প্রকাশ্যে থুথু ফেলা বন্ধ করার লক্ষ্যে গুটখা, পান-বিড়ির দোকান বন্ধ করার নির্দেশ দিয়েছে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক। স্বাস্থ্যকর্মীদের সুরক্ষার দিকেও নজর দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here