সামাজিক দূরত্ব পালনই যথেষ্ট নয়, হাওয়ায় ভাসে করোনা, হু’কে নতুন স্বাস্থ্যবিধি ঠিক করার পরামর্শ বিজ্ঞানীদের

আমাদের ভারত, ৬ জুলাই: সারা বিশ্বে করোনা ছড়িয়ে পড়ার সময় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার জানিয়েছিল এই ভাইরাস মানুষ থেকে মানুষের মাধ্যমে ছড়াচ্ছে। তাই সামাজিক দূরত্ব যদি মেনে চলা যায় তাহলে করোনা ভাইরাস থেকে সুরক্ষিত থাকা যাবে। কিন্তু বিজ্ঞানীরা জানাচ্ছেন শুধুমাত্র মানুষ থেকে মানুষেই নয়, হাওয়াতেও ভেসে বেড়ায় করোনা ভাইরাস। আর সেই জন্যই ভাইরাস থেকে বাঁচতে স্বাস্থ্য বিধিতে বদল আনার পরামর্শ দিয়েছেন বিজ্ঞানীরা।

এক আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যম সূত্রে খবর, ৩২ টি দেশের ২৩৯ জন বিজ্ঞানী দাবি করেছেন, করোনাভাইরাস সূক্ষ্ম জলকণা বেশ কিছুক্ষন হাওয়ায় ভেসে বেড়াতে সক্ষম। তার প্রমাণ তাদের কাছে আছে। এর অর্থ হাওয়াতে ভেসে ভেসে একজন থেকে অন্য জনকে সংক্রমিত করতে পারে করোনা। তাই অচিরেই স্বাস্থ্যবিধি পাল্টে ফেলার পরামর্শ দিয়েছেন বিজ্ঞানীরা বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে।

বিজ্ঞানীদের দাবি একজন করোনা আক্রান্ত ব্যক্তি হাঁচি বা কাশি দিলে তার নাক ও মুখ থেকে বেরোনোর জলকণা হাওয়াতে ভেসে বেড়ায়‌। একটা ঘরের সমান দূরত্ব অতিক্রম করতে পারে এই ভাইরাস। বেশ কিছুক্ষণ জীবিত থাকতে পারে এই ভাইরাস। অর্থাৎ সংক্রমিত ব্যক্তি ঘর থেকে বেরিয়ে যাওয়ার পরেও ভাইরাস সেখানে সক্রিয় থাকতে পারে এবং তার থেকে ওই ভাইরাস অন্য কারো শরীরে ঢুকতে পারে। অর্থাৎ সামাজিক দূরত্ব পালন করলেই ভাইরাস থেকে বাঁচা সম্ভব নয় বলেই তাদের যুক্তি বিজ্ঞানীদের।

একটি খোলা চিঠি দিয়ে বিজ্ঞানীরা বলেছেন, আগামী সপ্তাহেই একটি জার্নালে তারা এই তথ্য এবং কিভাবে হাওয়াতে ভাসমান সূক্ষ্ম জলকণা ভাইরাস ছড়াচ্ছে তার সম্পর্কে একটি লেখা প্রকাশিত করবেন। একই সঙ্গে এর থেকে কিভাবে বাঁচা সম্ভব সে সম্পর্কেও পরামর্শ দেবেন তারা সেখানে।

বিজ্ঞানীদের পরামর্শ নিয়ে হু এখনও তেমন কোনো মন্তব্য করেনি। এর আগে হু জানিয়েছিল করোনা ভাইরাস হাওয়ায় ভেসে বেড়ায় বলে যে দাবি করা হয়েছে তার স্বপক্ষে কোনো প্রমাণ পাওয়া যায়নি।প্রাথমিকভাবে বলা হয়েছিল করোনা আক্রান্ত কোনো ব্যক্তি হাঁচলে বা কাশলে তার নাক ও মুখ থেকে যে জল কণা নির্গত হয় তা কাছাকাছি থাকা কোন ব্যক্তির শরীরে প্রবেশ করলে তিনি আক্রান্ত হতে পারেন। তাই সকলকে নিদেনপক্ষে ২ মিটার দূরত্ব বজায় রাখার কথা বলা হয়েছিল। সেই সঙ্গে মাস্ক ব্যবহার বাধ্যতামূলক করা হয়েছিল। স্যানিটাইজার দিয়ে বারবার হাত ধোয়া, নাক মুখ হাত ধোয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছিল। এবার সেই নিয়ম বদলে ফেলার পরামর্শ দিচ্ছেন বিজ্ঞানীরা। ফলে ভাইরা থেকে বাঁচতে এখন নতুন কি নিয়ম হতে পারে, বা হু আদৌ স্বাস্থ্য বিধি বদল করে কিনা তার অপেক্ষায় গোটা বিশ্ব।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here