করোনা মোকাবিলায় নজিরবিহীন পদক্ষেপ মোদী সরকারের! মন্ত্রী-সাংসদদের বেতন ৩০ শতাংশ কমিয়ে দিল কেন্দ্র

আমাদের ভারত, ৬ এপ্রিল : করোনার মত মারন ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াই করতে বড় উদ্যোগ নিল মোদী সরকার। দেশের সব সাংসদ ও কেন্দ্রীয় মন্ত্রী এমনকি প্রধানমন্ত্রীরও ৩০ শতাংশ বেতন কমিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে মোদী সরকার। সোমবার কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার ভার্চুয়াল বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত হয়েছে। একটি অর্ডিন্যান্স এনে আপাতত এই সিদ্ধান্ত কার্যকর করতে চলেছে কেন্দ্র। সংসদের অধিবেশন শুরু হলে এই সংক্রান্ত আইন আনা হবে। আগামী দুবছর এমপি ল্যাডও সাসপেন্ড করা হয়েছে।

ক্রমশ নিজের গতি বাড়াচ্ছে করোনা। সেই আবহে সোমবার মন্ত্রিদের নিয়ে ভিডিও কনফারেন্সে একটি জরুরি বৈঠক করেন প্রধানমন্ত্রী। সেই বৈঠকে ঠিক হয় আগামী এক বছর সাংসদরা ৩০ শতাংশ বেতন পাবেন। একইসঙ্গে সিদ্ধান্ত নিয়ে নেওয়া হয় অর্ডিন্যান্সে রাষ্ট্রপতি সই করে দিলেই অর্ডিন্যান্সটি কার্যকর হয়ে যাবে। পয়লা এপ্রিল থেকে অর্ডিন্যান্সটি কার্যকর করতে চাইছে কেন্দ্র।

শুধু তাই নয় আগামী দু বছর সাংসদদের এলাকার উন্নয়নের জন্য আলাদা করে কোন টাকা দেওয়া হবে না। অর্থাৎ আগামী দুই বছরের জন্য বন্ধ হচ্ছে এমপি ল্যাড । একই ভাবে পেনশন ও ভাতারও ৩০ শতাংশ কমানো হবে।

এই পুরো টাকা দেশ গঠনের কাজে লাগবে বলে জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রকাশ জাভরেকর। তিনি বলেন, এটা সমাজের প্রতি আমাদের কর্তব্য, দেশের প্রতি আমাদের দায়িত্ব। এক ভাবে দেখতে গেলে এটি সাংসদরা ত্যাগ করছেন। তিনি জানিয়েছেন, রাষ্ট্রপতি উপরাষ্ট্রপতি এবং বেশ কয়েকটি রাজ্যের রাজ্যপাল নিজের ইচ্ছেতে নিজের বেতন থেকে সরকারের স্থায়ী তহবিলে দান করেছেন। এদের বেতন প্রক্রিয়া যেহেতু অন্যরকম তাই তারা অর্ডিন্যান্সের আওতায় আসছেন না। তবু সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকেই তারা স্বেচ্ছায় দান করতে তৈরি।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here