সচেতনতা প্রচারে করোনা জয়ী পুলিশ কর্মী

আমাদের ভারত, হাওড়া, ১০ আগস্ট: করোনা নিয়ে সাধারণ মানুষের মন থেকে আতঙ্ক দূর করতে এবং করোনা সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে এবার করোনা জয়ী পুলিশ কর্মীকে নিয়ে মানুষকে সচেতন করতে পথে নামল হাওড়া জেলা প্রশাসন। সোমবার উলুবেড়িয়া মহকুমাশাসকের দফতরের পাশে হাওড়া জেলা প্রশাসন, হাওড়া গ্রামীণ জেলা পুলিশ ও উলুবেড়িয়া চেম্বার অফ কমার্সের যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে করোনা জয়ী উলুবেড়িয়া ট্রাফিক পুলিশের ওসি নিশিকান্ত নস্করকে সঙ্গে নিয়ে সচেতনতা প্রচার করা হয়। এদিনের এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিধায়ক ইদ্রিস আলি, উলুবেড়িয়ার মহকুমাশাসক অরণ্য বন্দ্যোপাধ্যায়, হাওড়া গ্রামীণ জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আশিষ মৌর্য, উলুবেড়িয়া চেম্বার অফ কমার্সের সভাপতি তমাল ঘোষাল, সাধারণ সম্পাদক প্রবীর রায়, ইন্ডিয়ান মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশনের উলুবেড়িয়া শাখার সম্পাদক ডা: শান্তি গের সহ অন্যান্য বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ।

এদিন পুলিশ আধিকারিক নিশিকান্ত নস্কর করোনা নিয়ে অযথা আতঙ্কিত না হওয়ার পরামর্শ দেন। তিনি বলেন, আর পাঁচটা সাধারণ রোগের মত করোনা একটা রোগ এবং চিকিৎসা করালে এই রোগ থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। তবে করোনা থেকে দূরে থাকতে তিনি সকলকে মাস্ক পরার পাশাপাশি সাবান দিয়ে হাত ধোওয়া ও সকলকে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে চলার পরামর্শ দেন।

অন্যদিকে এদিন বিধায়ক ইদ্রিস আলি বলেন, করোনা মোকাবিলায় প্রথমদিন থেকেই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে প্রতিটি তৃণমূল কর্মী রাস্তায় নেমে মানুষের পাশে থেকে মানুষকে সচেতন করছে। পাশাপাশি পুলিশ প্রশাসনের কর্মীরাও একইভাবে রাস্তায় নেমে মানুষকে সচেতন করছেন। আর আমরা যদি সকলে একটু সচেতন ভাবে রাস্তায় চলাফেরা করি এবং সরকারের পরামর্শ মত নিয়ম মেনে চলি তাহলে করোনা যুদ্ধে আমাদের জয় নিশ্চিত।

অপরদিকে হাওড়া গ্রামীণ জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আশিষ মৌর্য নিজেদের স্বার্থে সকলকে মাস্ক পরার অনুরোধ করেন। এদিনের এই অনুষ্ঠান মঞ্চ থেকে উলুবেড়িয়া উপ সংশোধনাগারের বন্দীদের, ট্রাফিক পুলিশ কর্মীদের পাশাপাশি সাধারণ মানুষের মধ্যে ১০ হাজার মাস্ক বিতরণ করা হয়। এদিন উলুবেড়িয়া চেম্বার অফ কমার্সের পক্ষ থেকে উলুবেড়িয়া ও বাউড়িয়া থানার জন্য দুটি স্যানেটাইজার মেশিন দেওয়া হয়।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here