করোনার আতঙ্ক, গ্রামে বহিরাগতদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা পতিরামে

আমাদের ভারত, বালুরঘাট, ৮ এপ্রিল: করোনার আতঙ্কে গ্রামে বহিরাগতদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করে বিজ্ঞপ্তি দিল গ্রামবাসীরা। পতিরামের চকহায়ে গ্রামে ঢোকার মুখেই লাগানো হয়েছে সাবধানতার পোষ্টার। ঘরে বসেই নজরদারি চালাচ্ছেন বাসিন্দারা। জোর করে ঢুকলে জানানো হবে পুলিশকেও, লেখা রয়েছে পোস্টারে। বালুরঘাট-গাজোল ৫১২ জাতীয় সড়কের ধারে অবস্থিত ওই গ্রামে রীতিমতো বাঁশ টাঙিয়ে পোস্টার ঝুলিয়েছেন বাসিন্দারা। বহিরাগতরা যাতে কোনওভাবেই গ্রামে ঢুকতে না পারে সেই জন্য কড়া বার্তাও দেওয়া হয়েছে ওই পোস্টারে।

করোনা মোকাবিলায় লকডাউন, সোশ্যাল ডিসট্যানন্সিং-সহ একাধিক কড়া পদক্ষেপ নেওয়া সত্বেও দ্রুত বাড়ছে সংক্রমণ । ফলে কোনও কোনও রাজ্য এখনো লকডাউনের মেয়াদ বাড়ানোর পক্ষে রয়েছে। মঙ্গলবার দেওয়া স্বাস্থ্য মন্ত্রকের হিসেব অনুয়ায়ী গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে সংক্রমিত রোগীর সংখ্যা বেড়েছে ৩৫৪ জন। সবমিলিয়ে দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪৪২১। মৃতের সংখ্যাও দাঁড়িয়েছে ১১৭ তে। ইতিমধ্যে রাজ্যেও আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়েছে প্রায় ৬০। সরকারি হিসাবে মৃত্যু হয়েছে প্রায় ৩ জনের। এমন পরিস্থিতিতে প্রতিটি বাসিন্দাদের সুরক্ষিত রাখতে বহিরাগতদের গ্রামে প্রবেশ নিষিদ্ধ করা হয়েছে। জানাগিয়েছে, ৭০ থেকে ৮০টি পরিবারের বসবাস পতিরামের ওই চাকহাই গ্রামে। লকডাউনের হাজারও কষ্টের মধ্যেও সরকারি নির্দেশ ফলপ্রসূ করতে বাসিন্দাদের এমন উদ্যোগ যথেষ্টই প্রশংসা কুড়িয়েছে।

গ্রামের এক বাসিন্দা জসিরুদ্দিন মন্ডল জানিয়েছেন, বর্তমানে করোনা পরিস্থিতি ভয়ঙ্কর আকার নিচ্ছে। মারন ভাইরাস থেকে রক্ষা পেতে হলে লকডাউন মেনে চলতেই হবে। আর সরকারের সেই প্রচেষ্টাকে সফল করতে তাঁরা বহিরাগতদের গ্রামে প্রবেশ সম্পুর্ন ভাবে নিষিদ্ধ করেছেন। আর সেই কারনে গ্রামে ঢোকার মুখেই বাঁশ দিয়ে পোষ্টার সেঁটে দিয়েছেন বাসিন্দারা। কেউ জোর করে গ্রামে ঢুকলে পুলিশ প্রশাসনকে নালিশ করবেন তাঁরা।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here