স্বাস্থ্যকর্মীদের কোভিড পরীক্ষা কোচবিহারে, গ্রিন জোন হলেও দোকানপাট খোলা নিয়ে অনিশ্চয়তা

আমাদের ভারত, কোচবিহার, ৩ মে: করোনা মোকাবিলায় সচেষ্ট কোচবিহার জেলা প্রশাসন।। ইতিমধ্যেই জেলাতে ১০০০ এর বেশি নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে। যার মধ্যে রিপোর্ট হাতে এসেছে ৮০০ এর কাছাকাছি, যার প্রত্যেকটি নেগেটিভ। আজ কোচবিহার জেলা স্বাস্থ্য দপ্তরের উদ্যোগে জেলা মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিকের অফিসে যে সকল স্বাস্থ্যকর্মী করোনা মোকাবিলার কাজের সঙ্গে প্রত্যক্ষভাবে জড়িত তাদের নমুনা সংগ্রহ করা হল। এদিন ৪৫ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয় বলে জেলা মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক সুমিত গাঙ্গুলি জানিয়েছেন।

কোচবিহার জেলা এই মুহূর্তে গ্রিন জোন রয়েছে, ইতিমধ্যে জেলার বাইরে আটকে থাকা ছাত্র-ছাত্রী ও শ্রমিকরা ফিরতে শুরু করেছে। স্বাভাবিকভাবেই জেলা প্রশাসন অনেকটাই সতর্ক রয়েছে। প্রশাসন সূত্রে খবর যারা বাইরে থেকে আসছে তাদের সকলের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হচ্ছে এবং প্রয়োজনে তাদের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার ব্যবস্থা করা হচ্ছে। উত্তরবঙ্গের মধ্যে কোচবিহার জেলাতেই এত বেশি পরিমাণ নমুনা সংগ্রহ হয়েছে বলে সূত্রের খবর। জেলা মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক সুমিত গাঙ্গুলি জানিয়েছেন, কোচবিহার জেলার পরিস্থিতি ভালো রয়েছে, ভবিষ্যতেও ভালো থাকবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেছেন।

অন্যদিকে গ্রিন জোন হওয়ার ফলে আগামীকাল থেকে কোচবিহারে বেশ কিছু ছাড়ের কথা ঘোষণা করেছে কেন্দ্র ও রাজ্য, কিন্তু এই বিষয়ে জেলা প্রশাসনের কাছে লিখিত কোনো নির্দেশ না আসায় ধোঁয়াশায় রয়েছে প্রশাসনিক কর্তারা। জেলা প্রশাসন সূত্রে খবর, সরকারি নির্দেশ না আসায় সোমবার থেকে কোচবিহারে দোকান খোলার অনুমতি তারা দিতে পারছেন না। ব্যবসায়ী সমিতি অবশ্য দাবি করেছে, যদি কোনও ব্যবসায়ী দোকান খোলে তবে তাদের কিছু বলার নেই। সব মিলিয়ে আগামীকাল থেকে দোকানপাট খোলা নিয়ে অনিশ্চয়তা রয়েছে এই জেলায়।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here