অশোকনগর হাসপাতালকে পূর্ণাঙ্গ কোভিড হাসপাতাল করার দাবিতে অবস্থান বিক্ষোভ ও পৌরসভায় ডেপুটেশন সিপিএম, কংগ্রেসের

সুশান্ত ঘোষ, উত্তর ২৪ পরগণা, ১০ আগস্ট: আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ১৭৮ ছাড়িয়েছে। মৃত্যুও হয়েছে দুই জনের। দিনে দিনে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। কিন্তু তাঁদের কারও চিকিৎসা এলাকায় হয়নি। বাড়িতে থেকে যাঁরা চিকিৎসা করিয়েছেন, তাঁরা ছাড়া সকলেরই চিকিৎসা হয়েছে হয় বারাসত, না হয় ব্যারাকপুর বা কলকাতার হাসপাতালে। কারণ এলাকায় কোনও কোভিড হাসপাতাল নেই।

সম্প্রতি অশোকনগর হাসপাতালকে কোভিড হাসপাতালের ঘোষণা হয়েছে। প্রথম দিকে এলাকার মানুষের বাধা থাকলেও তা মেনে নিয়েছে। ১২ দফা দাবি নিয়ে মঙ্গলবার উত্তর ২৪ পরগণার অশোকনগর থানার কল্যাণগড় পৌরসভায় সিপিএম ও কংগ্রেসের পক্ষ থেকে পৌরসভার সামনে অবস্থান বিক্ষোভ করে। বিক্ষোভের পর কংগ্রেস ও সিপিএম দলের সাত জনের একটা প্রতিনিধিদল বর্তমান পৌরসভার প্রশাসক ও প্রাক্তন চেয়ারম্যান প্রবোধ সরকারের কাছে ডেপুটেশন জমা দেয়‌। তাদের মূলত দাবি, অশোকনগর স্টেট জেনারেল হাসপাতাল যদি কোভিড হাসপাতাল করতে হয় তাহলে ভেন্টিলেশন সহ পূর্ণাঙ্গ কোভিড হাসপাতাল করতে হবে। উপসর্গ নেই কিন্তু পজিটিভ তাদের বাড়িতে আলাদা থাকার জায়গা নেই এমন রোগীদের জন্য সেফ হোমের ব্যবস্থা করতে হবে। এছাড়া যারা এই মুহুর্তে হাসপাতালে ভর্তি আছে তাদের সুচিকিৎসা করতে হবে। করোনা পজিটিভ পরিবারকে চিকিৎসা বা হাসপাতালে টেস্টের প্রয়োজনে পৌরসভারকে ২৪ ঘন্টা অ্যাম্বুলেন্স পরিষেবা দিতে হবে। ডেপুটেশন চলাকালীন কোনও রকম অপ্রীতিকর ঘটনা যাতে না ঘটে সেই কারণে পুলিশি ব্যবস্থা রাখা হয়েছিল।

সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করে পৌরপ্রধান প্রবোধ সরকারের বলেন, অশোকনগর হাসপাতাল যদি সত্যিই কোভিড হাসপাতাল হয় তবে মাতৃ সদন ভবনে অন্যান্য রোগীদের চিকিৎসার ব্যবস্থা করার চিন্তাভাবনা আছে। এছাড়া কোভিড হাসপাতাল হলে সেটি পূর্ণাঙ্গ হাসপাতাল হবে বলে আশ্বাস দিলেন পৌরপ্রধান।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here