মেদিনীপুর শহরে বামেদের দৃপ্ত মহামিছিল

জে মাহাতো, আমাদের ভারত, মেদিনীপুর, ১৪ অক্টোবর: মেদিনীপুর শহরে অনেকটা সময়ের ব‍্যবধানে বিশাল আকারের দৃপ্ত মিছিল করল বামফ্রন্ট ও বামপন্থী দলসমূহ। দীর্ঘদিন বাদে শহরের প্রধান রাস্তা রিংরোডজুড়ে আছড়ে পড়ল লাল ঝান্ডার ঢেউ। কর্পোরেট তোষণকারী কৃষি আইন বাতিল, তৃণমূল বিজেপির জনস্বার্থ বিরোধী নীতি ও খুন-সন্ত্রাস-ধর্ষণের রাজনীতির বিরুদ্ধে, গণতন্ত্র, ধর্মনিরপেক্ষতা ও সংবিধান বাঁচানোর লড়াইকে জোরদার করার লক্ষ্যে, করোনা আয়করের বাইরে থাকা মানুষের মাসিক সাড়ে সাত হাজার টাকা ভাতার দাবিতে, রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থা বেসরকারিকরণের বিরুদ্ধে, শ্রমিক শ্রেণির স্বার্থ রক্ষার দাবি সহ নানা দাবিকে সামনে রেখে মেদিনীপুর শহরে মহামিছিল অনুষ্ঠিত হল জেলা বামফ্রন্টের আহ্বানে।

বুধবার বিকেলে এই মহামিছিল শুরুর আগে মেদিনীপুর কলেজ ময়দানে এক সংক্ষিপ্ত বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সিপিএমের রাজ‍্য সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্র, জেলা সম্পাদক তরুণ রায়, সিপিএম নেতা তাপস সিনহা, প্রাক্তন বিধায়ক তথা সিপিআই নেতা সন্তোষ রানা, কংগ্রেসের জেলা সভাপতি সমীর রায়, আরএসপির শক্তি ভট্টাচার্য, ফরোয়ার্ড ব্লকের সুকুমার সিং, সিপিএমএলের শৈলেন মাইতি সহ অন্যান্যরা​।

উল্লেখ্য, সমাবেশে উপস্থিত হয়ে মিছিলকে সমর্থন করলেও মিছিলে হাঁটেননি কংগ্রেস নেতৃত্ব। জেলার বিভিন্ন প্রান্তের প্রায় হাজার দশেক মানুষ এদিনের মিছিলে অংশ নেন। গোটা মিছিলে হেঁটে সামনের সারি থেকে মিছিলে নেতৃত্ব দেন সূর্যকান্ত মিশ্র, তরুণ রায়, তাপস সিনহা, কীর্তি দে বক্সী সহ অন্যান্য বাম নেতৃত্ব। মিছিলে কৃষি আইন বাতিল সহ, কেন্দ্রের বিজেপি সরকার ও রাজ‍্যের তৃণমূল সরকারের বিভিন্ন জনস্বার্থ বিরোধী কাজের বিরুদ্ধে মুহুমুহু স্লোগান উঠতে থাকে। মিছিল কলেজ মাঠ থেকে শুরু হয়ে গোলকুঁয়ারচক, বটতলা, নান্নুর চক, কেরানীটোলা, ক্ষুদিরাম মোড়, গান্ধী মোড়, পোস্ট অফিস রোড হয়ে পুনরায় কলেজ মাঠে শেষ হয়। মাঝে ঝমঝমিয়ে বৃষ্টি এলেও মিছিল এগিয়েছে স্বাভাবিক ছন্দে। আর এই বড় আকারের মিছিলে স্বভাবতই খুশি বাম নেতৃত্ব ও সমর্থকরা।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here