মায়ের পরকীয়ার জের, মৃত্যু সদ্যোজাত শিশুর!

গোপাল রায়, আমাদের ভারত, আরামবাগ, ২৪ সেপ্টেম্বর: সদ্যোজাত শিশুকে হত্যা করার অভিযোগ উঠল গৃহবধূর বাপের বাড়ির লোকজনদের বিরুদ্ধে। ঘটনাকে কেন্দ্র করে বুধবার দিনভর চাঞ্চল্য ছড়ায় খানাকুল থানার অন্তর্গত কিশোরপুরে।

স্থানীয় সুত্রে জানা যায় বছর তিনেক আগে বন্দিপুর এলাকার বাসিন্দা সুপ্রিয়ার বিয়ে হয় কিশোরপুর এলাকার অর্ণব মালিকের সাথে। বিয়ের কিছুদিন পরেই সুপ্রিয়ার শ্বশুর বাড়ির লোকজন জানতে পারে তার প্রেমের সম্পর্ক রয়েছে অন্য যুবকের সাথে। বহুবার শ্বশুর বাড়ির লোকজন তাকে এই সম্পর্ক থেকে সরে আসতে বলে।

তবে সুপ্রিয়ার স্বামী কর্মসূত্রে ভিন্ন রাজ্যে থাকতেন।
লকডাউনে বাড়ি ফেরে সে। গত কয়েকদিন আগে অর্ণব তার স্ত্রীর কল রেকর্ড শোনে তার পরেই সমস্ত বিষয় পরিস্কার হয়ে যায়। তবু নিজের স্ত্রীকে বুঝিয়ে সুখে সংসার করার কথা বলেন। স্ত্রী অন্তঃসত্ত্বা অবস্থায় বাপের বাড়িতে চলে যায় আর গত সোমবার সুপ্রিয়াকে তাঁর স্বামী আরামবাগের একটি নার্সিং হোমে ভর্তি করে। তবে বুধবার সদ্যোজাত জন্ম নেওয়ার পর অর্ণবকে বলা হয় মৃত বাচ্চা জন্ম নিয়েছে। কান্নায় ভেঙে পরে অর্ণব ও তাঁর পরিবার।

পরিবারের অভিযোগ, শিশুর মাথায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। পাশাপাশি শরীরেও কয়েকটি আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। ফলে শিশুটি ভূমিষ্ঠ হওয়ার পর তাকে মেরে ফেলা হয়েছে। এরপর ঘটনাটি ঘিরে পরিবারের পক্ষ থেকে সুপ্রিয়া ও তার পরিবারের বিরুদ্ধে শিশু খুনের অভিযোগ দায়ের করা হয়।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here