পটাশপুরে আমফানে ক্ষতিগ্রস্তদের ফর্ম জমা না নেওয়ায় বিক্ষোভ, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশের লাঠিচার্জের অভিযোগ

আমাদের ভারত, পূর্ব মেদিনীপুর, ১০ আগস্ট: পটাশপুর ২ ব্লক অফিসে অামফানে ক্ষতিগ্রস্তদের ক্ষতিপূরণের ফর্ম জমা না নেওয়ায় বিডিও অফিসের সামনে বিক্ষোভ জনগণের। ঘটনাস্থলে পটাশপুর থানার বিশাল পুলিশবাহিনী এসে পরিস্থিতি সামাল দেন।

পূর্ব মেদিনীপুরের পটাশপুর ২ নম্বর ব্লকে আমফান ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্তদের ক্ষতিপূরণ দেওয়া নিয়ে শাসক দল তৃণমূলের বিরুদ্ধে স্বজনপোষণের অভিযোগ উঠেছিল বারবার। প্রথম দফায় ক্ষতিপূরণ দেওয়া শুরু হলেও আসল ক্ষতিগ্রস্ত অনেকেই সেই ক্ষতিপূরণের টাকা পাননি বলে বিক্ষোভ দেখানো হয় বিভিন্ন জায়গায়। তাই আবার বিডিও অফিসে আমফান ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্তদের নতুন করে ফর্ম জমা নেওয়া শুরু হয়। আজ বহু ক্ষতিগ্রস্ত মানুষ সেই ফর্ম জমা দিতে এলে তা না নেওয়ার অভিযোগ ওঠে। সেই কারণেই মানুষজন বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন বিডি অফিসের সামনে। বিক্ষোভ সামাল দিতে খবর পেয়ে পটাশপুর থানার পুলিশ আসে। পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

বিক্ষোভকারী এক মহিলার অভিযোগ, পটাশপুর থানার পুলিশ লাঠিচার্জ করে। ব্যাপক মারধরও করে বয়স্ক মানুষ থেকে মহিলাদের। কোনও মহিলা পুলিশ ছাড়াই কি করে একজন মহিলাকে মারধর করা হয়? এই নিয়ে উঠছে প্রশ্ন। এই খবর সংগ্রহ করতে এলে ঘটনাস্থলে সংবাদমাধ্যমের কর্মীকেও রীতিমতো তেড়ে মারতে আসে পটাশপুর থানার সাব-ইন্সপেক্টর আনন্দ হাজরা এবং অফিসের সামনে বিভিন্ন রকম গালিগালাজ করে এক পুলিশকর্মী বলে অভিযোগ বিক্ষোভকারীদের। পুলিশের বাধায় অবশ্য বিক্ষোভকারীরা পিছু হঠে এবং পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। তবে এই ঘটনায় এলাকায় উত্তেজনা আছে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here