করোনা সতর্কতাকে অগ্রাহ্য করে দিল্লির নিজামুদ্দিনে ধর্মীয় সভায় অংশ নেওয়া ২৭ জন আক্রান্ত করোনায়, মৃত ৬

আমাদের ভারত,৩১ মার্চ : করোনা সতর্কতা কি না মেনে তাবলিঘ ই জামাতের মসজিদে ২০০০ মানুষের বিশাল ধর্মীয় সমাবেশ করা হয়েছিল। আর তারপর থেকে সেই সমাবেশে অংশগ্রহণ করা ২৭ জনের দেহে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ দেখা যায়। মৃত্যুও হয়েছে ৬ জনের।

দক্ষিণ দিল্লির নিজামুদ্দিনের সভার পর থেকে করোনা ভাইরাসের লক্ষণ দেখা গেছে ওই এলাকার অগণিত মানুষের মধ্যে। ছয়তলা সেই মারকাজে এখনো রয়েছেন প্রায় ১৪০০ মানুষ। সভা শেষ হওয়ার পর প্রায় ৩০টি বাসে করে অংশ নেওয়া ব্যক্তিরা দেশের বিভিন্ন প্রান্তে ছড়িয়ে পড়েছেন।

অথচ করোনা ভাইরাস সতর্কতায় যে কোনো রকমের সমাবশ বন্ধ রাখার আবেদন করেছিলেন দেশের প্রধানমন্ত্রী ও রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীরা। কিন্তু সেই আর্জিকে বিন্দু মাত্র পাত্তা না দিয়ে দু হাজারহমানুষ নিয়ে মার্চের মাঝামাঝি দিল্লির নিজামুদ্দিনে হয় তাবলিঘ ই জামাতের ধর্মসভা।

এমনকি এই ধর্ম সভায় ভারতের বাইরের বিভিন্ন দেশের অতিথিরাও অংশগ্রহণ করেছিলেন। সৌদি আরব, মালয়েশিয়া, ইন্দোনেশিয়া থেকে ধর্মগুরুরা এসেছেন। আর ধর্মীয় সভার শেষে সেইসব অতিথিরা ভারতের একাধিক প্রান্তে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে চলে যান।

লক ডাউনের আগে এবং পরে যখন বিভিন্ন রাজ্যে করোনাভাইরাস এর আক্রান্তদের খবর পাওয়া যাচ্ছে তখন কিছুসংখ্যক ব্যক্তির ক্ষেত্রে দেখা যায় তাদের অনেকেই মার্চের ওই ধর্মীয় সভায় অংশগ্রহণ করেছিলেন। ফলে দুয়ে দুয়ে চার করতে বেশি দেরি হয়নি প্রশাসনের।

আন্দামান নিকোবর থেকেও ওই সভায় অংশ নেওয়া নয়জন এবং তাদের মধ্যে একজনে স্ত্রী করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত। ওই ধর্মীয় সভা থেকে ফিরে এসে তেলেঙ্গানায় অসুস্থ হয়ে পড়েন বেশকিছু মানুষ। ততার মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ৬ জনের। ওই ধর্মসভা থেকে তেলেঙ্গানায় গিয়েছেন বেশকিছু ইন্দোনেশিয়া থেকে আসা ধর্মপ্রচারকও। তাদের মধ্যে ১০ জনের দেহে রয়েছেনষ করোনা ভাইরাস।

ওই জামাতের সভা থেকেই শ্রীনগরে ফেরার পর অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন এক ধর্মগুরু। তার দেহ করোনাভাইরাস এর হদিস পাওয়া যায়। গত সপ্তাহে তার মৃত্যু হয়। এই সমস্ত সূত্র এক জায়গাতেই মিলে যেতেই নড়েচড়ে বসে দিল্লির প্রশাসন। করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তিদের সঙ্গে ওই সভায় যারা সংস্পর্শে এসেছেন তাদের প্রত্যেককে কোয়ারান্টিনে পাঠানো হয়। রক্তের নমুনা পরীক্ষার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

শুধু ওই ধর্মীয় সভায় অংশগ্রহণকারী মানুষরাই নয়। নিজামুদ্দিনের পার্শ্ববর্তী দক্ষিণ দিল্লির বহু মানুষের দেহে করোনাভাইরাসের প্রাথমিক উপসর্গগুলো দেখা দেওয়ায়পুরো এলাকাগুলি সিল করে দেওয়া হয়েছে। সব অংশগ্রহণকারী ব্যক্তিদের ওপর কড়া নজরদারি রাখা হয়েছে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here