লাভজেহাদের ফাঁদ থেকে এক মহিলা সহ তাঁর সন্তানদের উদ্ধার করলেন দেবদত্ত মাজি

আমাদের ভারত, ৩ ডিসেম্বর: প্রায় ২০ বছর ধরে ঠকে যাওয়া দাম্পত্য থেকে বেরিয়ে হিন্দু ধর্মে ফিরলেন এক মহিলা ও তার তিন সন্তান। মুসলিম হয়েও নিজেকে হিন্দু পরিচয় দিয়ে সিধেসাদা হিন্দু মেয়েকে প্রেমের ফাঁদে ফেলে। বিয়ের পর তিনি জানতে পারেন সব। তখন তাঁকে জোর করে ইসলাম ধর্ম গ্রহণে বাধ্য করা হয়। তারপর লাগাতার পাচারের কাজে ব্যবহার করা হয়েছে ওই হিন্দু মহিলাকে, তাঁর অজান্তেই। হঠাৎ একদিন পাচারের সময় তিনি ধরা পড়েন পুলিশের হাতে। অসহায় সেই হিন্দু মহিলাকে সাহায্য হাত বাড়িয়ে দেন বর্তমানে হিন্দু সংগঠন সিংহ বাহিনীর সভাপতি দেবদত্ত মাজি। আইনি লড়াই করার পাশাপাশি ওই মহিলা আবার ফিরে আসেন হিন্দু ধর্মে। সঙ্গে তাঁর তিন সন্তানও গ্রহণ করেন হিন্দু ধর্ম। ঘটনা মুর্শিদাবাদের।

দীর্ঘদিন ধরে ওই মহিলাকে তাঁর স্বামী যে মুর্শিদাবাদের কুখ্যাত দুষ্কৃতী শেখ সেন্টু তাঁর অজান্তেই পাচারের কাজে ব্যবহার করছে তা ঘুনাক্ষরেও টের পাননি তিনি। এই শেখ সেন্টু মন্ডল মুর্শিদাবাদের কুখ্যাত আসামী সেখ সায়নের ছেলে।

প্রায় ২০ বছর আগে এই শেখ সেন্টু নিজেকে হিন্দু পরিচয় দিয়ে ওই মহিলাকে প্রেমের ফাঁদে ফেলে। শেখ সেন্টুর মিথ্যা প্রকাশ পায় তাদের বিয়ের পর। এরপর শেখ সেন্টু ওই মহিলাকে জোর করে ইসলাম ধর্ম গ্রহণে বাধ্য করে। ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করলেও ওই হিন্দু মহিলা বরাবর সধবা হিসেবে শাঁখা সিঁদুর পরে এসেছেন হিন্দু রীতি মেনে। শেখ সেন্টুও তাতে বাধা দেয়নি, কারণ শাঁখা সিঁদুর পরা হিন্দু মহিলাকে দিয়ে তার পাচারের কাজ চালিয়ে যেতে সুবিধা হতো। এদিকে তাদের তিনটি সন্তানও হয়।

কিন্তু দীর্ঘদিন এভাবে চললেও বছর ছয়েক আগে ২০১৩ সালে ওই মহিলা পুলিশের হাতে ধরা পড়ে। অন্যদিকে তাঁর ছয়মাস পর শেখ সেন্টুও ধরা পড়ে পুলিশের হাতে।

দেবদত্ত মাজি ঘটনা সম্পর্কে জানার পরেই ওই মহিলার দিকে তাঁর সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেন। তিনি ওই মহিলাকে ফের হিন্দু ধর্মে ফিরে আসার প্রস্তাব দেন।এক সময় জোর করে মুসলিম ধর্মে ধর্মান্তরিত হওয়া ওই মহিলা সেই প্রস্তাব মেনে আবার হিন্দু ধর্মে ফিরতে চান। ওই মহিলার ইচ্ছা মত তাঁর তিন কন্যা সন্তানও হিন্দু ধর্ম গ্রহণ করেন।

ওই মহিলার বড় মেয়ের সঙ্গে একটি হিন্দু ছেলের বিয়ে হয়। নিরাপত্তার স্বার্থে বাকি দুই কন্যা সন্তানকেও ওই মহিলা সিংহ বাহিনীর সংগঠকদের হেফাজতে তুলে দেন।

দীর্ঘ ছয় বছর নিজের অজান্তেই করা দোষের জন্য জেল খেটে বেরিয়ে এসেছেন দিন পনের আগে।

সিংহ বাহিনী ও দেবদত্তবাবুর জন্যেই ওই হিন্দু মহিলা আবার নতুন করে জীবনে বাঁচার সুযোগ পেয়েছেন। দেবদত্তবাবু বলেন, পশ্চিমবঙ্গ সহ দেশ জুড়ে এই লাভ জেহাদের ফাঁদে ফেলে জোর করে ধর্মান্তরকরণের কাজ চলছে। হিন্দু মেয়েরা প্রেমের ফাঁদে পড়ে নিজের জীবন নষ্ট করে ফেলছে। তাই সিংহ বাহিনী হিন্দু মেয়েদের এই লাভ জেহাদের ফাঁদ সম্পর্কে লাগাতার সচেতনতার কাজ চালিয়ে যাচ্ছে। এছাড়াও ইতিমধ্যেই যারা লাভ জেহাদের শিকার, তাদের দিকেও সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিচ্ছেন তারা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here