নাড্ডার ফোনের পর উপ মুখ্যমন্ত্রী হতে রাজি হলেন দেবেন্দ্র ফড়নবিশ

আমাদের ভারত, ৩০ জুন: মহারাষ্ট্রে টান টান নাটক চলল একেবারে শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত। বিকেলে দেবেন্দ্র ফড়নবিশ ঘোষণা করেছিলেন মহারাষ্ট্রের নতুন মুখ্যমন্ত্রী হবেন না। একইসঙ্গে জানিয়েছিলেন তিনি নতুন সরকারেও অংশগ্রহণ করবেন না। কিন্তু পূর্ণ সমর্থন দেবেন। তবে শিণ্ডে শপথ নেওয়ার কয়েক মিনিট আগেই বিজেপি ঘোষণা করে দিল ফড়নবিশ অংশ নেবেন সরকারে। তিনি হবেন এই সরকারের উপমুখ্যমন্ত্রী।

বিজেপি সভাপতি জেপি নাড্ডা সংবাদ সংস্থা এএনআই’কে জানিয়েছেন, “দেবেন্দ্র ফড়নবিশকে আমি ফোন করেছিলাম। তিনি প্রথমে সরকারে অংশ নিতে রাজি ছিলেন না। আমি তাকে পার্টির মনোভাবের কথা জানিয়ে অনুরোধ করি। তারপর তিনি রাজি হয়েছেন। ফড়নবিশ শপথ নেবেন উপ মুখ্যমন্ত্রী পদে।

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহও জানিয়েছিলেন, দেবেন্দ্র ফড়নবিশ মহারাষ্ট্রের উপ-মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেবেন। গত ৮ দিন ধরে মহারাষ্ট্রের রাজনীতিতে টানটান নাটক চলছে। কখনো গুজরাট, কখনো গোয়াহাটি। কখনো গোয়া। স্নায়ুযুদ্ধ চলছিল মারাত্মক। শেষ পর্যন্ত বুধবার রাতে মুখ্যমন্ত্রী পদ থেকে ইস্তফা দেন উদ্ধব ঠাকরে। তারপর অনেকেই ধরে নিয়েছিলেন বিদ্রোহী শিবসেনাদের সমর্থন নিয়ে ফড়নবিশ মুখ্যমন্ত্রী হতে চলেছেন।

বৃহস্পতিবার বিকেলে শিণ্ডেকে নিয়ে রাজভবনে যাওয়ার আগে পর্যন্ত তেমনটাই ধারণা ছিল সকলের। কিন্তু তা মিলল না। মুখ্যমন্ত্রী হলেন শিণ্ডে। আর সরকারে না থেকে সমর্থন দেবে ফড়নবিশ। কিন্তু শেষ মুহূর্তে সেই ক্লাইম্যাক্স পাল্টে গেল। একদা মুখ্যমন্ত্রী থাকা ফড়নবিশ মহারাষ্ট্রের উপমুখ্যমন্ত্রী।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here