প্রতিশ্রুতি দিয়ে সহবাস, লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে বিয়েতে অস্বীকার, যুবকের বাড়ির সামনে ধর্না যুবতীর

স্নেহাশীষ মুখার্জি, আমাদের ভারত, নদিয়া, ২ জুলাই:
বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে দেড় বছর ধরে লক্ষ লক্ষ টাকা আত্মসাৎ এবং সহবাসের অভিযোগ, পরে বিয়ে করতে অস্বীকার, যুবকের বাড়িতে ধর্না যুবতীর। ঘটনাটি ঘটেছে নদিয়ার শান্তিপুর থানার বাসডোপ এলাকায়।

সূত্রের খবর, নদিয়ার শান্তিপুর থানার আরবান্দি এক নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের বাসডোপ গ্রামের বাসিন্দা অমিত মন্ডল। দেড় বছর আগে তিনি কলকাতার একটি বারে কাজে যান। সেখানেই কাজ করতেন ওই যুবতী। সেখান থেকে তাদের সম্পর্ক তৈরি হয়। যুবতীর অভিযোগ, তাকে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে সহবাস করে দীর্ঘদিন ধরে প্রায় লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয় ওই যুবক। যুবতীর অভিযোগ, সেখানে তাকে বিয়ে করা হয়। কিন্তু বাড়ি নিয়ে যেতে বললে অস্বীকার করে সে। দীর্ঘদিন এইভাবে চলার পর অমিত মন্ডল যুবতীকে ছেড়ে দেওয়ার কথা বলে। শেষে ওই যুবতী নিরুপায় হয়ে পুলিশের দ্বারস্থ হয়। পুলিশের কাছ থেকে কোনো সাহায্য না পেয়ে অবশেষে ওই যুবকের বাড়িতে ধর্নায় বসে যুবতী। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসে শান্তিপুর থানার পুলিশ। যদিও বাড়ি থেকে পলাতক অভিযুক্ত অমিত মন্ডল।

পুলিশের তৎপরতায় এবং গ্রামবাসীদের চাপে অবশেষে যুবতীকে ঘরে তুলতে রাজি হয় যুবকের পরিবারের লোকজন।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here