সামাজিক সচেতনতা বাড়াতে গাছ বিতরণ বিয়ে বাড়িতে

8

আমাদের ভারত, রামপুরহাট, ২৬ ফেব্রুয়ারি: বোনের বিয়েতে নিমন্ত্রিত অতিথিদের হাতে গাছ তুলে দিলেন দাদা। সেই সঙ্গে বিয়ে বাড়ি জুড়ে সাঁটানো হয়েছে সামাজিক সচেতনতা মূলক পোষ্টার। শ্বশুর বাড়ির এই সামাজিক ভাবনায় খুশি বর সহ বর পক্ষ। বিয়ের আসর বসেছিল বীরভূমের নলহাটি থানার বাউটিয়া গ্রামে। ওই গ্রামের মৃৎশিল্পী প্রয়াত লিপ্টন চট্টোপাধ্যায়ের দুই ছেলেমেয়ে। গ্রামে ছোট মেয়ের বিয়ের আসর বসেছিল মঙ্গলবার রাতে। সেখানে ছ’শো নিমন্ত্রিত অতিথি উপস্থিত ছিলেন। খাবার টেবিলে অতিথিদের হাতে আম, জাম, কাঁঠাল, শিশু, সেগুন, সোনাঝুরি গাছের চারা তুলে দেন মেয়ের দাদা সামু চট্টোপাধ্যায়। মেয়ে প্রিয়াঙ্কাও বরযাত্রীদের হাতে গাছের চারা তুলে দেন।

বিয়ের মণ্ডপে ঢুকতেই চোখে পড়ে গাছ লাগান-গাছ বাঁচান, সেফ ড্রাইভ-সেভ লাইফ, ভ্রূণ হত্যা বন্ধ করো এর মতো একাধিক সচেতনতা মূলক পোষ্টার। কিন্তু বিয়ে বাড়িতে এমন অভিনব উদ্যোগ কেন? সামু বলেন, “বর্তমানে গাছ নিধনের ফলে পৃথিবীর ভারসাম্য নষ্ট হচ্ছে। ঋতুরও পরিবর্তন হচ্ছে। বাড়ছে দূষণ। এসব ভাবনা থেকেই গাছের চারা বিতরণের ভাবনা। যাতে বেশি করে গাছ লাগানোয় এলাকা দূষণ মুক্ত হয়। এছাড়া গাড়ি চালাতে গিয়ে প্রতিনিয়ত দুর্ঘটনা ঘটছে, কেউ কেউ কন্যা ভ্রূণ নষ্ট করছে। এসব নিয়ে মানুষকে সচেতন করতেই এই উদ্যোগ। এর ফলে মানুষ কিছুটা সচেতন হলে জানব আমাদের উদ্যোগ সফল”।

নতুন বর শুভদীপ রায় বলেন, “শ্বশুর বাড়িতে যে উদ্যোগ নেওয়া হয়েছিল তা সত্যিই অভিনব। আমরা বিয়ের অনুষ্ঠানে এরকম ভাবনা ভাবতেও পারিনি”।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here