রেশন কার্ড বন্ধক রাখার প্রবণতা দূর করতে ঝালদা গ্রামে জেলা শাসক

সাথী প্রামানিক, পুরুলিয়া, ২০ এপ্রিল: সরকারি নথি বা রেশন কার্ড গচ্ছিত রাখা বা বন্ধক রাখা এবং দেওয়া এই সবই সমান অপরাধ। পুরুলিয়ায় এই প্রবণতা দূর করতে তৎপর হল জেলা প্রশাসন। জেলার ঝালদা ১ নম্বর ব্লকের সরজুমাতু গ্রামে ১৪ টি পরিবারের রেশন কার্ড বন্ধক ছিল গ্রামেরই মোড়লদের কাছে। যার ফলে এই লকডাউন পরিস্থতিতে সমস্যায় পড়েন ঐ পরিবারগুলি। সরকারের দেওয়া বিনামূল্যের রেশন থেকেও বঞ্চিত ছিলেন ঐ পরিবারগুলি। সংবাদমাধ্যমের খবরের জেরে টনক নড়ে সরকার তথা জেলা প্রশাসনের। পরে ঐ পরিবারগুলি তাদের রেশনকার্ড ফেরৎ পায়। এবং সরকার থেকে ঐ পরিবারগুলিকে আলাদাভাবে কিছু পরিমাণ চাল, আলু সহ অন্যন্য সামগ্রী দেওয়া হয়। 

ঝালদার সেই সরজুমাতু গ্রাম। অভাবে রেশন কার্ড বন্ধক দিয়ে খবরের শিরোনামে আসা সেই গ্রামের মানুষদের সঙ্গে রেশন কার্ড সংক্রান্ত আলোচনা ও তাদের আগামী দিনের জীবন নির্বাহের পরিকল্পনা স্থির করতে আজ নিজেই পৌঁছে যান জেলা শাসক। রাহুল মজুমদার। বিগত দিনে তাঁরা যে রেশন তুলতে পেরেছেন সে বিষয়ে আশ্বস্ত হলেও কিভাবে ওই সব গ্রামবাসীর আগামী দিনে ১০০ দিনের কাজ, জয় বাংলা পেনশন স্কিম ইত্যাদি সুবিধা প্রদান করা যেতে পারে তা নিয়ে খোলাখুলি আলোচনায় করেন জেলাশাসক। গ্রামের মানুষদের সঙ্গে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখেই চলে আলোচনা। জেলার প্রশাসনিক প্রধানকে কাছে পেয়ে এই মুহুর্তে স্বস্তির ছাপ গ্রামবাসীর চোখে মুখে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here