দু’বছরের মধ্যেই ভরদুপুরে হুড়মুড়ি ভেঙ্গে পড়ল পানীয় জল প্রকল্পের ট্যাঙ্ক

ছবি: এখানে ছিল জলের ট্যাঙ্ক।
আমাদের ভারত, বাঁকুড়া, ২২ জানুয়ারি: দু’বছরের মধ্যেই ভরদুপুরে হুড়মুড়ি ভেঙ্গে পড়লো পরিশ্রুত পানীয় জল প্রকল্পের ট্যাঙ্ক। বাঁকুড়ার সারেঙ্গার ফতেডাঙ্গা গ্রামের ঘটনা। বুধবার দুপুরের এই ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। ঐ জলের ট্যাঙ্কটির নির্মাণে সংশ্লিষ্ট ঠিকাদার সংস্থার গাফিলতি রয়েছে বলে অভিযোগ উঠতে শুরু করেছে। শেষ পাওয়া খবর পর্যন্ত কোনও হতাহতের খবর নেই।

স্থানীয় সূত্রে খবর, বছর দুই আগে জনস্বাস্থ্য কারিগরী দপ্তরের উদ্যোগে এলাকায় পরিশ্রুত পানীয় জল সরবরাহের জন্য ফতেডাঙ্গা গ্রামে এই ট্যাঙ্কটি তৈরী হয়। এই প্রকল্পে স্থানীয় গড়গড়্যা গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার বিস্তীর্ণ অংশের মানুষকে পানীয় জল সরবরাহ করা হতো। আজ দুপুর ৩টা নাগাদ ফতেডাঙ্গা গ্রামের ঐ জলের ট্যাঙ্কটি সশব্দে ফেটে যায়। হঠাৎই তা হুড়মুড়িয়ে ভেঙ্গে পড়ার ফলে এলাকা জলমগ্ন হয়ে যায়।

ছবি: ভেঙ্গে পড়ার মুহূর্ত।

এই ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী ও ঐ জলপ্রকল্পের কর্মী সাগুন মুর্ম্মু বলেন, প্রথমে কিছু অংশ ভেঙ্গে পড়তে থাকে তারপর মাত্র দশ মিনিটের মধ্যে সশব্দে ঐ জলের ট্যাঙ্কটি ভেঙ্গে পড়ে। আরও এক প্রত্যক্ষদর্শী অর্চণা হেম্ব্রমের কথায়, বিকট আওয়াজ পেয়ে বাড়ির বাইরে বেরিয়ে এসে দেখি জলের ট্যাঙ্কটি ভেঙ্গে পড়ছে। দীর্ঘদিন এই জলই তারা পানীয় হিসেবে ব্যবহার করতেন। এবার তাদের সমস্যায় পড়তে হবে বলে তিনি জানিয়েছেন। স্থানীয় বাসিন্দা দেবেন মুর্ম্মুর দাবি, নির্ম্মাণকাজে গাফিলতি থাকার কারণেই এই জলের ট্যাঙ্কটি ভেঙ্গে পড়েছে। ঘটনার খবর পেয়ে গ্রামে সারেঙ্গা থানার পুলিশ পৌঁছেছে। পুলিশের পক্ষ থেকেও হতাহতের কোন খবর নেই বলেই জানানো হয়েছে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here