১২ লাখ টাকার বিনিময়ে জঙ্গিদের দিল্লি পৌঁছনোর ব্যবস্থা করছিলেন ডিএসপি

আমাদের ভারত,১৩ জানুয়ারি: জম্মু কাশ্মীর থেকে জঙ্গিদের পৌঁছে দিতে হবে দিল্লিতে আর তার জন্য তিনি পাবেন ১২লক্ষ টাকা। রবিবার কাশ্মীরে জঙ্গিদের সঙ্গে একই গাড়িতে ধৃত জম্মু-কাশ্মীরের ডিএসপি দেবেন্দর সিং সম্পর্কে এমনই বিস্ফোরক তথ্য উঠে এসেছে বলে দাবি করেছেন তদন্তকারী পুলিশ আধিকারিক ও কেন্দ্রীয় গোয়েন্দাদের।

তবে দেবেন্দের জানিয়েছেন, তিন নাকি জঙ্গিদের আত্মসমর্পণ করাতেই তাদেরকে সঙ্গে করে নিজের গাড়িতে নিয়ে যাচ্ছিলেন। দেবেন্দের এই দাবিকে কোন ভাবেই বিশ্বাসযোগ্য বলে মনে করছেন না গোয়েন্দারা।

তবে এই জঙ্গিদের দিল্লিতে কেন নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল সেই প্রশ্নই আপাতত খুঁজছেন গোয়েন্দারা। কারণ কয়েকদিন পরেই প্রজাতন্ত্র দিবস। সেই সময় বড়োসড়ো জঙ্গির হামলার ছক ছিল কিনা তাও জানার চেষ্টা করা হচ্ছে। নাকি বড় হামলার আগে রেইকি করতে ওই জঙ্গিরা দিল্লি যাচ্ছিলেন, তাও জানার চেষ্টা করছেন গোয়েন্দারা। গোয়েন্দাদের ধারণা সেই কাজেও দেবেন্দর জঙ্গিদের দিল্লিতে পৌঁছে দিতে পারেন।

শনিবার গোপন সূত্রে খবর পেয়ে দক্ষিণ কাশ্মীরের কুলগামে একটি গাড়ি আটকায় পুলিশ। ওই গাড়িতে জঙ্গিদের সঙ্গে ছিল পুলিশের ডিএসপি দেবেন্দর সিং। গাড়িটি তার ব্যক্তিগত গাড়ি ছিল। গাড়িতে জঙ্গিদের মধ্যে ছিলেন হিজবুল মুজাহিদ্দীনের কামান্ডার নাভেদ। এই নাভেদের বিরুদ্ধে একাধিক খুন ও নাশকতার মামলা দায়ের রয়েছে।

জঙ্গিদের সঙ্গে উচ্চপদস্থ এবং রাষ্ট্রীয় পুরস্কার প্রাপ্ত পুলিশকর্তা ধরা পড়ার পর থেকেই তোলপাড় হয়েছে সারাদেশ। তবে গোয়েন্দারা দেবেন্দর ও জঙ্গিদেরকে জেরা করে তথ্য জোগাড়ের চেষ্টা করছে। সূত্রের খবর জম্মু-কাশ্মীর হাইওয়ের ওপর বানিহাল টানেল পার করিয়ে দেওয়ার জন্য জঙ্গিদের সঙ্গে ১২ লক্ষ টাকায় রফা হয়েছিল দেবেন্দরের। তিনি নিজে যদি গাড়িতে থাকেন তাহলে সেই গাড়ি আর কেউ আটকাবে না এই ভেবেই নিজের গাড়িতে জঙ্গিদের সঙ্গে করে নিয়ে যাচ্ছিলেন তিনি। তবে পাওনা ১২ লক্ষ টাকার মধ্যে কত টাকা তার ব্যাংক একাউন্টে ঢুকেছে তাও তদন্ত করে দেখছেন পুলিশ আধিকারিকরা।

দেবেন্দরের অবশ্য পাল্টা দাবি, জঙ্গিদের আত্মসমর্পণের পরিকল্পনা চূড়ান্ত করতেই তাদের নিজের গাড়িতে করে নিয়ে যাচ্ছিলেন তিনি। জেরায় জঙ্গিদের মধ্যে একজন আত্মসমর্পণের কথা বললেও। বাকিরা সেসম্পর্কে কিছু জানেনা বলে জানিয়েছে।

তদন্তে উঠে এসেছে, এর আগেও অন্তত আরও পাঁচটি ক্ষেত্রে জঙ্গিদের সাহায্য করেছে দেবেন্দর। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে বানিহাল টানেল পার করাতে সাহায্য করেছেন তিনি। জঙ্গিদের জম্মুতে আশ্রয়ের ব্যবস্থা করে দিয়েছেন তিনি। শনিবার গাড়িতে করে দিল্লি যাওয়ার আগে নিজের বাড়িতেই ওই জঙ্গীদের রেখেছিলেন দেবিন্দের বলে জানা গেছে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here