ক্রিজে হারের দিনই ট্র্যাকে ঝলসাল দ্যুতি

ক্রিজে হারের দিনই ট্র্যাকে ঝলসাল দ্যুতি

চিন্ময় ভট্টাচার্য 

আমাদের ভারত, ১১ জুলাই: ধোনি-কোহলিদের হারের জ্বালায় মলম দিলেন দ্যুতি চাঁদ। প্রথম ভারতীয় অ্যাথলিট হিসেবে সামার ইউনিভার্সিটি গেমসে, ১০০ মিটার দৌড়ে বিশ্বজয় করলেন। আগে কোনও ভারতীয় স্প্রিন্টারই  বিশ্বস্তরের বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিযোগিতায় ১০০ মিটার দৌড়ে ফাইনালে পর্যন্ত ওঠেননি। তার অবশ্য কারণও রয়েছে। আন্তর্জাতিক অ্যাথলিট হয়ে ওঠার পর, ভারতীয় স্প্রিন্টাররা আর লেখাপড়ার আঙিনায় পা দিতে চাননি। তখনও পড়াশোনার পাট না-চোকালেও, আবার অনেকে, বিশ্ববিদ্যালয়স্তরের প্রতিযোগিতা এড়িয়ে গিয়েছেন। সেই সুযোগেই বাজিমাত করলেন দ্যুতি চাঁদ। কারণ, তিনি এখনও ওডিশার কলিঙ্গ ইনস্টিটিউট অফ ইন্ডাস্ট্রিয়াল টেকনোলজির (কেআইআইটি) পড়ুয়া। এবার ইতালির নাপলসে বসেছিল এই বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিযোগিতার আসর। 
শুধু বাজিমাতই নয়, রেকর্ডও গড়লেন দ্যুতি চাঁদ। ১১.৩২ সেকেন্ডে শেষ করলেন দৌড়। পরশু দিন সেমিফাইনালে নিয়েছিলেন ১১.৪১ সেকেন্ড। সোমবার হিটে নেন ১১.৫৮ সেকেন্ড। দৌড় শেষ করে এই জয় তিনি কেআইআইটিকে উৎসর্গ করেছেন। বলেন, ‘প্রথম ভারতীয় অ্যাথলিট হিসেবে এই সোনা জিতে দারুণ লাগছে। আমার বিশ্ববিদ্যালয়কে পদক উৎসর্গ করতে চাই। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা প্রফেসর অচ্যুত সামন্তজি খুব খারাপ সময়েও আমার পাশে দাঁড়িয়েছেন। এছাড়াও ওড়িশার মানুষ এবং মুখ্যমন্ত্রী নবীন পট্টনায়েককেও ধন্যবাদ জানাই।’

মাস তিনেক আগেই স্পষ্টভাষী দ্যুতি স্বীকার করে নিয়েছিলেন, তিনি সমকামী সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েছেন। এনিয়ে পারিবারিক অশান্তির কথাও মেনে নিয়েছিলেন। কিন্তু, সমস্যা যে তাঁর জীবনের চেয়ে বড় হয়ে উঠতে পারেনি, ট্র্যাক অ্যান্ড ফিল্ডে দ্যুতি ছড়িয়ে, বুধবার সেটাই যেন বুঝিয়ে দিলেন এই অ্যাথলিট। 

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

one × 5 =