রোজভ্যালি কান্ডে এবার নাম জড়ালো প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়ের

রোজভ্যালি কান্ডে এবার নাম জড়ালো প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়ের

আমাদের ভারত, কলকাতা,৯ জুলাই: রোজভ্যালি কাণ্ডে এবার নাম জরালো অভিনেতা প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়ের। আগামী ১৯ জুলাইয়ের মধ্যে ইডি দফতরে তাকে হাজিরা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এনফোর্সমেন্ট ডাইরেক্টরেট সূত্রে জানা গেছে রোজভ্যালি কাণ্ডে টলিউডের প্রথম সারির এই অভিনেতাকে জিজ্ঞাসাবাদ করতেই তলব করা হয়েছে।

প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়ের আগে তৃণমূল কংগ্রেস নেতা মদন মিত্রকে রোজভ্যালি কাণ্ডে জিজ্ঞাসা বাদের জন্য তলব করা হয়। এবার প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় কে তলব করেছে ই ডি। রোজভ্যালি কর্তার সঙ্গে তার কোনো যোগাযোগ ছিল কিনা,কিংবা ওই সংস্থার সঙ্গে কোনো আর্থিক লেনদেন ছিল কিনা এই অভিনেতার তা জানতে চাওয়া হতে পারে বলে জানা গেছে।

সূত্রের খবর রোজভ্যালি কর্তা গৌতম কুন্ডুর টাকায় একাধিকবার বিদেশ ভ্রমণ থেকে শুরু করে নানা আর্থিক সুযোগ-সুবিধা নিয়েছেন টলিউডের একাধিক জনপ্রিয় অভিনেতা অভিনেত্রী। এমনই কোন এক অভিনেত্রীর সূত্র ধরেই প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়কে জেরা করতে চলেছে ইডি বলে খবর।

ইতিমধ্যে একাধিক প্রযোজক, নায়িকার নাম জড়িয়েছে রোজভ্যালি কাণ্ডে। এই সমস্ত ঘটনায় টলিউডের পাশে দাঁড়িয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছিলেন প্রসেনজিৎ, ঋতুপর্ণার মতো অভিনেতা-অভিনেত্রীরা পেশাগত কারণে অনেক সংস্থার হয়ে কাজ করেন। এতে অন্যায় কোথায়। ওরা সিনেমা করে এটা ওদের পেশা।

রোজভ্যালি কর্তা গৌতম কুন্ডু প্রযোজিত একাধিক ছবিতে অভিনয় করেছেন প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়। তাই সেই সূত্র ধরেও হতে পারে জেরা। অন্যদিকে সারদা কাণ্ডের নোটিস পাঠিয়ে তৃণমূল সাংসদ শতাব্দী রায়কেও তলব করেছে ই ডি। ১২ জুলাইয়েরর মধ্যে তাকে হাজিরা দিতে বলা হয়েছে। সারদার একাউন্ট থেকে তাকে কেন টাকা পাঠানো হয়েছিল তা জানতেই তাকে তলব করা হয়েছে বলে খবর। বিভিন্ন নথি থেকে ইডি জানতে পেরেছে সারদার অ্যাকাউন্ট থেকে তৃণমূল সাংসদের কাছে টাকা গেছে। সারদার ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হিসেবে কাজ করেছেন শতাব্দী। ফলে বাজার থেকে টাকা তোলার ক্ষেত্রে তার ভূমিকা কি ছিল তা জানতে চাইছেন ইডি আধিকারিকরা।

এর আগে সিবিআইয়ের নজরে বিষয়টি এসেছিল। ২০১৭ সালের জুলাই মাসে তৃণমূল সাংসদ তথা অভিনেত্রী শতাব্দী রায়ের বাড়িতে গিয়ে তিন ঘণ্টা ধরে জিজ্ঞাসাবাদ চালিয়েছিল সিবিআইয়ের আধিকারিকরা।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

seventeen + 16 =