ভালো খবর! উৎসব মরশুমের আগেই দাম কমতে পারে ভোজ্য তেলের

আমাদের ভারত, ৫ আগস্ট:
মধ্যবিত্তের হেঁশেলের জন্য খুশির খবর। এক ধাক্কায় ভোজ্যতেলের দাম কমতে পারে বলে জানা গেছে। সরকারের তরফে ভোজ্যতেলের কোম্পানিগুলির সাথে একটি বৈঠকে এমনই সিদ্ধান্ত হয়েছে বলে জানা যাচ্ছে।

নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের দাম প্রতিদিন যেভাবে বেড়েছে তাতে সংসার চালাতে হিমশিম খেতে হচ্ছে আম জনতাকে। দিনের-পর-দিন প্রত্যেকটা জিনিসের দাম পাল্লা দিয়ে বেড়ে চলেছে। সেখানে দাড়িয়ে মিলল খুশির খবর। ভোজ্য তেলের দাম লিটার প্রতি ১০-১৫ টাকা কমতে পারে। জানা গেছে, দাম কমানোর বিষয়ে সরকারের তরফে তেল কোম্পানিগুলিকে বিবেচনা করতে বলা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার তেল কোম্পানিগুলোর সঙ্গে বৈঠক করেছেন খাদ্য সচিব। সেখানে প্রতি লিটারে অন্তত ১০ টাকা করে দাম কমানোর কথা বলা হয়েছে। দাম কমলে বহু মানুষ কিছুটা হলেও স্বস্তি পাবেন।

তবে শেষ দু’মাসে সরকারের হস্তক্ষেপে ভোজ্য তেলের দাম একটু হলেও কমেছিল। সামনেই উৎসবের মরশুম। ফলে সেই দিকে তাকিয়ে যদি সরকার ভোজ্যতেলের দাম কমাতে পারে তাহলে সাধারণ মানুষ একটু স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলার সুযোগ পাবে।

বাজারে বাদাম তেলের দাম ১৮৬ টাকা, সরষে তেলের দাম ১৭৩ টাকা, সোয়াবিন তেলের দাম ১৫৭টাকা, সূর্যমুখী তেলের দাম ১৭১ টাকা। অর্থাৎ সব ভোজ্য তেলের দাম ১৫০ টাকার ওপরে।

জানা যাচ্ছে, ভোজ্য তেলের কোম্পানিগুলির সঙ্গে সরকারের বৈঠকে কোম্পানিগুলি‌ ১০-১২ টাকা তেলের দাম কমানোর ক্ষেত্রে সম্মত হয়েছে। জানা যাচ্ছে, রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে এই ভোজ্যতেলের দাম বেড়েছিল। এছাড়াও নানা নিষেধাজ্ঞা তেলের দাম বৃদ্ধির কারণ। ইন্দোনেশিয়া একটি বড় তেল রপ্তানিকারক দেশ। গত দু’মাসে তেল রপ্তানির ওপর তারা তাদের নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ায় আন্তর্জাতিক বাজারে ভোজ্য তেলের দাম অনেকটা কমেছে। অন্যদিকে, তেলের দাম কমানোর জন্য কেন্দ্র সরকার গত মে মাসে তেল কোম্পানিগুলোর সঙ্গে তিনটে বৈঠক করছে। সেই বৈঠকের পর তেলের দাম একটু হলেও কমেছিল। এবার লিটার প্রতি ১০-১২ টাকা কমার খবর পাওয়া যাচ্ছে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here