সবার রক্তের রং–ই লাল, তবে…

শান্তনু সিংহ
আমাদের ভারত, ৬ অক্টোবর: রক্তের রং লাল। যে দেশের, যে বর্ণের, যে ধর্মের, যে সমাজের মানুষই হোন না কেন সবার রক্ত–ই লাল। সুভাষচন্দ্র বসুর রক্তের রং লাল। আবার তাঁর রক্তাক্ত সংগ্রাম যাদের বিরুদ্ধে ছিল, সেই ইংরেজদের রক্তের রং–ও লাল। মোহনদাস করমচাঁদ গান্ধীর রক্তের রং লাল। আবার তিনি যাঁর সাথে বসে পাকিস্তান তৈরি করলেন, সেই মোহাম্মদ আলি জিন্নার রক্তের রং–ও লাল। জহরলাল নেহেরুর রক্তের রং লাল। আবার তিনি যাঁর প্রেমে ভেসে বেড়িয়ে কাশ্মীরে হঠাৎ পাকিস্তানের আগ্রাসনকে মোকাবিলা করে ভারতীয় সৈন্যদের কাশ্মীরের জমি উদ্ধারকে মাঝ পথে থামিয়ে কাশ্মীরকে একটা চিরকালীন সমস্যা তৈরি করে দিয়ে গেলেন, সেই লেডি এডুনা মাউন্টব্যাটেনের রক্তের রঙ–ও লাল ।

ফ্রান্সের যে রানি অবাক বিষ্ময়ে প্রশ্ন করেছিলেন – ওরা রুটি খেতে পারে না, তবে কেক খায় না কেন?” তাঁরও রক্তের রং যেমন লাল, তেমনি যে ভুখা মানুষগুলো সেদিন বাস্তিল দুর্গের পতন ঘটিয়েছিল, তাদেরও রক্তের রং লাল ।

কিন্তু এই রক্তের রং যখন কালো হয়ে যায় তখনই সমস্যা। পেটে প্রচন্ড জ্বালা নিয়ে রোগী গেছেন ডাক্তারের কাছে:
ডাক্তারবাবু, পেটে প্রচন্ড জ্বালা।‌ পায়খানার সাথে রক্ত বের হচ্ছে।
ডাক্তারবাবু জিজ্ঞেস করলেন: রং কি রকম, লাল না কালো?
রোগী বললেন – কালো।
ডাক্তারের কপালে ভাঁজ। চোখে চিন্তার আভাস; ইউএসজি করতে হবে, সঙ্গে কোলোনোস্কপি।

কাশি দিলেই রক্ত ওঠে। ডাক্তারবাবু প্রশ্ন করলেন: এই রক্তের রং কেমন, লাল না কালো? লাল হলে খুব একটা সমস্যা নেই। কিন্তু কালো হলেই মুশকিল। অনেক দিনের জমানো কোনও রোগের লক্ষণ।

রক্তের রং কালো হওয়াটা খুবই বিপজ্জনক। কিন্তু রক্তের এই কালো রং নিয়েই অনেকে বেঁচে থাকে।‌ তবে সুস্থভাবে নয়। ধুক ধুক করে। তার এই বেঁচে থাকা নিজের জন্য কষ্টকর তো বটেই, সঙ্গে তার আত্মীয়-স্বজন, সমাজ, সকলের কাছেই এক বিড়ম্বনা। কিন্তু সে বেঁচে থাকে।

ভনিতা না করে এবার গেয়েই ফেলি “মহীনের ঘোড়াগুলি”র সেই জনপ্রিয় গানটা। তবে প্যারোডি করে –

লাল রং আরও গাঢ় হতে হতে রক্তটা আরো জমে যেতে যেতে হয়ে গেল কালো কফিনে বন্দী আ হা, আ হা হা হা

কমিউনিস্ট কি পিএফআই হল পিএফআই – কমিউনিস্ট, দুটোই এক ছিল আজ বোঝা গেল দুজনেরই এক ফন্দি আ হা, আ হা হা হা

দেশটাকে ওরা ভেঙ্গে ভেঙ্গে ভেঙ্গে গজব-ও-হিন্দের আদর্শ মেনে কংগ্রেসকেও পেয়েছে ওদের সঙ্গী। আ হা, আ হা হা হা

দেশ শত্রুদের যেখানেই পাও গুলির বন্যা বইয়ে তো দাও এই দেশে বাঁচবে না কোনও জঙ্গি আ হা, আ হা হা হা।
(মতামত লেখকের নিজস্ব, এর জন্য আমাদের ভারত দায়ী নয়।)

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here