পুরুলিয়ার আড়ষায় তিন বছরের শিশু পুত্রকে ড্যামের জলে ফেলে হত্যা বাবার

সাথী দাস, পুরুলিয়া, ২১ জুন: তিন বছর দু’মাসের শিশুপুত্রকে রাতের অন্ধকারে কোলে তুলে নিয়ে গিয়ে ড্যামের জলে ফেলে হত্যা করল বাবা। পাশবিক শিশু হত্যার অভিযোগে বাবার আপাতত ১৪ দিনের জেল হল। ঘটনাটি ঘটে পুরুলিয়ার আড়ষা থানার বালিয়া গ্রামে। রবিবার পুরুলিয়া জেলা আদালতে তোলা হয় অভিযুক্ত বিদ্যাধর মাহাতোকে। তার চোখে মুখে কৃতকর্মের কোনও অনুশোচনা লক্ষ্য করা যায়নি। সে পুলিশের কাছেও ঘটনার অনুতাপ প্রকাশ করেনি কোনোভাবেই।

কদিন আগে বাড়িতে এক জ্ঞাতির বিয়ের অনুষ্ঠানে বেশ স্বাভাবিক ছিল পেশায় মজুর বিদ্যাধর। বৃহস্পতিবার রাতে কাকার পাশে শুয়ে থাকা ওই শিশুটি(নাম সমীর মাহাতো)কে হঠাৎ করে তুলে নিয়ে ছুটে বাড়ি থেকে প্রায় ১ কিলোমিটার দূরে একটি চেক ড্যামে গিয়ে ছুড়ে ফেলে দেয় অভিযুক্ত বিদ্যাধর। ছুটে পালানোর সময় বিষয়টি দেখতে পান শিশুর মামা মনপূরণ মাহাতো। পরদিন শিশুটির খোঁজ না পাওয়ায় মনপূরণ বাবু শিশুটির বাবার বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন আড়ষা থানায়। শুক্রবার মাঝরাতে শিশুর দেহ উদ্ধার হয় ওই চেক ড্যাম থেকে। পুলিশ অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে।

ধৃতের পারিবারিক সূত্রে জানা গিয়েছে তার বছর ছয়েকের একটি মেয়ে রয়েছে। পরিবারের সঙ্গে খুব বড় ধরনের কোনো অশান্তির ঘটনা ঘটেনি। তবু আদরের ছোট ছেলেকে সে এই ভাবে হত্যা করল কেন? বুঝে উঠতে পারছেন না স্ত্রী ও পরিবারের বাকি সদস্যরাও।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here