আরজি কর হাসপাতালে আত্মঘাতী মহিলা চিকিৎসক

চিন্ময় ভট্টাচার্য, আমাদের ভারত, ১ মে: আরজি কর হাসপাতালের এমারজেন্সি ক্যাজুয়ালিটি ব্লকের ১১ তলা থেকে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা করলেন এক জুনিয়র মহিলা চিকিৎসক। করোনা আবহের মাঝে এই ঘটনায় হাসপাতাল চত্বরে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে।

সূত্রের খবর, মৃতের নাম পৌলমী সাহা (২৫)। তিনি পিজিটি করছিলেন। শিশু বিভাগের ‘সিক নিওনেটাল কেয়ার ইউনিট’-এ ডিউটি করতেন পৌলমী। তবে শুক্রবার তাঁর ডিউটি পড়ে ফিবার ক্লিনিকে। এদিন সকাল ১১টা ১৫ মিনিট নাগাদ ওপর থেকে ভারী কিছু পড়ার শব্দ পেয়ে বাইরে বেরিয়ে আসেন হাসপাতালের কর্মীরা। দেখেন মাটিতে পড়ে রয়েছে পৌলমীর রক্তাক্ত দেহটি। হাসপাতালের কর্মীরা জানান, মরণঝাঁপ দেওয়ার পর কার্নিসে ধাক্কা খেয়ে রেলিংয়ে ধাক্কা খায় দেহটি। তারপর তা মাটিতে পড়ে। তবে ওই চিকিৎসক এমন ঘটনা কেন ঘটালেন, তা এখনও স্পষ্ট নয়।

হাসপাতাল সূত্রে খবর, বেশ কিছুদিন ধরেই তিনি নাকি মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন। এই কারণেই প্রাথমিকভাবে পৌলমী আত্মহত্যা করেছেন বলেই মনে করা হচ্ছে। দেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। সেই রিপোর্ট হাতে পেলে তবেই মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে বলে পুলিশ সূত্রে খবর।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here