ক্যাম্পাসে ভাঙচুরের অভিযোগে ঐশীর বিরুদ্ধে এফআইআর, রবিবারে তান্ডবকারীদের কেউ গ্রেফতার হয়নি

আমাদের ভারত,৭ জানুয়ারি:জেএনইউ ক্যাম্পাসে দুষ্কৃতি হামলার আগের দিন ক্যাম্পাসে সার্ভার রুম ভাঙার অভিযোগে পুলিশ এফ আই আর দায়ের করল ঐশী সহ ২০ জনেরর বিরুদ্ধে। যদিও এখনো পর্যন্ত রবিবারে তান্ডব লীলার সাথে জড়িত কোনো দুষ্কৃতীকেই গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

ক্যাম্পাসে দুষ্কৃতীদের হামলার আগের দিন সার্ভার রুমে ভাংচুরের অভিযোগে ঐশীদের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করেছে দিল্লি পুলিশ। ৪ জানুয়ারি জেএনইউ ক্যাম্পাসে সার্ভার রুমে ভাঙচুর করা হয়। সেই ঘটনায় ছাত্রসংসদের সভানেত্রী ঐশী ঘোষ সহ মোট কুড়ি জনের বিরুদ্ধে পুলিশ এফআইআর দায়ের করেছে বলে খবর। এফআরএ উল্লেখ করা হয়েছে ফি বৃদ্ধির প্রতিবাদ করার সময় সার্ভার রুমে ভাঙচুর করে আন্দোলনকারী ছাত্রছাত্রীরা। একই সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয় গার্ডকেও মারধর করা হয় বলে অভিযোগ।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ৩ ও ৪ জানুয়ারি এফআইআর দায়ের হয়। পরে সেই এফ আই আরে নিরাপত্তারক্ষীকে হেনস্তা করার অভিযোগও যুক্ত হয় ঐশী এবং আটজনের বিরুদ্ধে।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা গেছে, ৩ জানুয়ারি আন্দোলনকারী সার্ভার রুম বন্ধ করে দিয়েছিল। তার পরের দিন শনিবার বিশ্ববিদ্যালয় এক কর্মী সেই সার্ভার চালু করতে গেলে তাকে বাধা দেওয়া হয় তাকে মারধরও করা হয় বলে অভিযোগ। এই ঘটনাতেই ঐশীর বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

এরপর রবিবার সন্ধ্যেবেলায় মুখে কাপড় বেঁধে ৫০-৬০ জনের দুষ্কৃতীর দল হামলা চালায় বিশ্ববিদ্যালয়ে। ব্যাপক ভাংচুরের পাশাপাশি মারধর করা হয় ছাত্র-ছাত্রীদের অধ্যাপক অধ্যাপিকাদেরও। ওই ঘটনায় আহত হয় ঐশী সহ ৩৪ জন। ঐশীর মাথায় ১৬টি সেলাই পড়েছে। হাত ভেঙেছে। গুরুতর আহত অবস্থায় অনেক ছাত্র-ছাত্রী ভর্তি আছে হাসপাতালে। যদিও এই ঘটনায় পুলিশ এফআইআর দায়ের করে নিলেও এখনো পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতার করে উঠতে পারেনি। তবে দুষ্কৃতীদের তান্ডবলীলা চালোনার আগের দিন সার্ভার রুম ভাঙার অভিযোগে ঐশীদের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করেছে দিল্লি পুলিশ।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here