এলাকার দুঃস্থ ও গরিব মানুষদের হাতে খাদ্য সামগ্রী তুলে দিলেন উত্তর দিনাজপুর জেলা যুব তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি গৌতম পাল

আমাদের ভারত, উত্তর দিনাজপুর, ৪ এপ্রিল:
লকডাউনে রাজ্যের সাধারণ মানুষ যাতে খাবারের জন্য কোনও অসুবিধায় না পড়েন সেজন্য বিশেষ উদ্যোগী হয়েছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়। তাঁরই নির্দেশে জেলায় জেলায় সাধারণ মানুষকে সাহায্য ও সহযোগিতা করতে ঝাঁপিয়ে পড়েছেন জনপ্রতিনিধি থেকে তাঁর দলের কর্মীরা। উত্তর দিনাজপুর জেলা যুব তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি গৌতম পাল হেমতাবাদ ও করণদিঘি বিধানসভা এলাকার দুঃস্থ গরিব দিনমজুর মানুষদের হাতে তুলে দিলেন চাল, ডাল, আলু, সোয়াবিন এবং হাত ধোওয়ার জন্য একটি করে সাবান। তাঁর এই মহতি উদ্যোগে খুশী এলাকার বাসিন্দারা।

লক ডাউনের জেরে ঘর থেকে বের হতে পারছেন না সাধারণ মানুষ। এই অবস্থায় সবচেয়ে দুঃসহ অবস্থায় পড়েছেন খেটে খাওয়া দিনমজুর গরিব এবং দুঃস্থ মানুষরা। দলনেত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের নির্দেশে এইসব দুঃস্থ মানুষদের দিকে সাহায্য ও সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন তাঁর দলের কর্মী থেকে জনপ্রতিনিধিরা। এবার জেলা যুব তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি গৌতম পাল এলাকার দুঃস্থ গরিব এবং দিনমজুর বাসিন্দাদের হাতে তুলে দিলেন চাল, ডাল, আলু, পেঁয়াজ, সোয়াবিন ও হাত ধোওয়ার জন্য একটি করে সাবান।

জেলা যুব তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি গৌতম পাল জানান, লক ডাউনের সময়ে গ্রামগঞ্জের দুঃস্থ গরিব দিনমজুর মানুষদের পাশে দাঁড়ানোর উদ্যোগেই তাদের হাতে স্বল্প কিছু সামগ্রী তুলে দেওয়া হল। এর পাশাপাশি এলাকার বাসিন্দাদের করোনা ভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে লক ডাউনে বাড়ি থেকে বের না হওয়ার পরামর্শ দেন। তিনি বলেন, জেলার মানুষকে যেকোনও প্রয়োজনে আমাকে ফোন করতে বলেছি। আমি সর্বদা তাদের পাশে আছি এবং থাকবো। এমন এই দুঃসহ সময়ে কাউন্সিলরের কাছ থেকে খাদ্য সামগ্রী পাওয়ায় খুবই খুশী জেলার করণদিঘি ও হেমতাবাদের দুঃস্থ বাসিন্দারা।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here