চরম আশঙ্কা! প্রথম ধাপের ভ্যাক্সিনেই করোনা মুক্তি হবে না, শুধু মাত্র কমবে উপসর্গ, মনে করছেন গবেষকরা

আমাদের ভারত,২৫ সেপ্টেম্বর:গোটা বিশ্ব এখন তাকিয়ে কবে আসবে করনা ভ্যাক্সিন তার দিকে। কেউ এখনো পর্যন্ত নির্দিষ্ট করে বলতে পারেননি কবে আসবে করোনা ভ্যাক্সিন। তবে ট্রায়াল চলছে একাধিক ভ্যাক্সিনের। তারই মধ্যে আবার করোনা ভ্যাক্সিন নিয়ে বড়োসড়ো আশঙ্কার কথা শোনালেন বিজ্ঞানীরা। তাদের মতে ভ্যাক্সিন এলেই করোনার প্রকোপ কমবে না। প্রথমবারের ভ্যাক্সিনে করোনা থেকে মুক্তি পাওয়া যাবে না বলেই বিজ্ঞানীরা মনে করছেন।

তারা বলেছেন প্রথম ধাপের করোনা ভ্যাক্সিনে রোগ মুক্তির আশায় থাকলে ভুল হবে। প্রথম ভ্যাক্সিনের রোগ থেকে মুক্তি পাওয়া যাবে না। বরং এই ভ্যাক্সিন উপসর্গ কমতে পারে। টাইমস পত্রিকার একটি প্রতিবেদনে বলা হয়েছে করোনার ভ্যাক্সিন মানুষকে সম্পূর্ণ স্বাভাবিক জীবন ফেরাতে এখনই সফল হবে না। অক্সফোর্ডের যে বিজ্ঞানীরা করোনার ভ্যাক্সিন তৈরি করছেন তারা ঠিক করেছেন যাতে একজন মানুষকে করোনা থেকে ৫০% নিরাপত্তা দেওয়া যায়। এমন ক্ষমতার ভ্যাক্সিন তৈরি করার দিকে তারা এগোচ্ছেন। তারা মনে করছেন এভাবে উপসর্গযুক্ত আক্রান্তের সংখ্যা যদি ৫০ শতাংশে কমিয়ে আনা যায় তাহলে অনেকটাই উপকার হতে পারে।

তবে একেবারে চরম সাফল্য না পেলেও প্রথম ধাপে আংশিক সাফল্য পাবে করোনার ভ্যাক্সিন। গবেষক প্যাট্রিক ভ্যালেন্সে জানিয়েছেন, ভ্যাক্সিন যাদের শরীরে দেওয়া হয়েছে তাদের শরীরে করোনার অ্যান্টিবডি তৈরি হয়েছে। আশা করা হচ্ছে আগামী বছরের শুরুতেই করোনার ভ্যাক্সিন সাধারণ মানুষের কাছে এসে পৌঁছে যাবে। তবে তাতে উপসর্গ কমবে মাত্র। পুরোমাত্রায় করোনা মুক্তি এখনই ঘটবে না। সে কারণেই তিনি বলেছেন সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা থেকে শুরু করে যে নিয়মকানুন গুলো এখন মানতে হচ্ছে তা পালন করতে হবে মানুষকে। ভ্যাক্সিন চলে এলেও সেই নিয়ম মানতে হবে।

সরকারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে ভ্যাক্সিনের দুটি ডোজ নেওয়ার পরে শরীরে করোনার উপসর্গ কমতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। তারা মনে করছেন, প্রথম একটি করণা ভ্যাকসিনের ডোজ নেওয়ার পর আবারও একটি ভ্যাকসিন নিতে হবে তবেই সম্পূর্ণ নিরাপদ হওয়া যাবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here