নিউটাউন শুট আউটের ফরেন্সিক রিপোর্ট, কলকাতায় ধৃত ভরতের শ্বশুরবাড়ির খোঁজ

রাজেন রায়, কলকাতা, ১৩ জুন: নিউটাউন শুট আউটের ঘটনার পর এবার চাঞ্চল্যকর তথ্য এল গোয়েন্দাদের হাতে। শাপুরজি আবাসনের অভিশপ্ত বি ব্লকের ২০১ নং ফ্ল্যাটে পঞ্জাবের কুখ্যাত দুই গ্যাংস্টার জয়পাল, জসপ্রীতকে নিকেশ করতে রুদ্ধশ্বাস ১৫ মিনিটে ৩৫ রাউন্ড গুলি চলেছিল। নিউটাউন এনকাউন্টার কাণ্ডের প্রাথমিক তদন্ত রিপোর্ট শনিবার সন্ধ্যায় জমা দিয়েছে ফরেনসিক দল।

ফরেনসিক সূত্রে খবর, ঘটনার দিন শুধুমাত্র ফ্ল্যাটের ভিতরেই গুলি বিনিময় হয়েছিল। বাইরে একটাও গুলির দাগ নেই।

ঘরের দেওয়াল, আলমারিতে বুলেটের দাগ রয়েছে। আরও জানা গিয়েছে, নিহত জসপ্রীতের দেহে ১২টি এবং জয়পালের শরীরে ১৭টি বুলেটের ক্ষত দেখা গিয়েছে।

এই চক্রের মূল পান্ডা ভরত কুমার পাঞ্জাব পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয়েছে। জানা গিয়েছে, তার শ্বশুরবাড়ি কলকাতায়। সম্ভবত সেই সূত্রেই কলকাতার আটঘাট তার চেনা। কিন্তু চারু মার্কেটের সেই বাড়ির লোকজন জামাইয়ের কীর্তিতে রীতিমতো অস্বস্তিতে।

অন্য দিকে, মেয়েকে দিনের পর দিন ফোনে না পেয়ে চিন্তা বাড়ছে মায়ের। ভরত কুমারের শ্বশুরবাড়ি চারু মার্কেট এলাকার সুলতান আলম রোডে। বছর তিনেক আগে পঞ্জাবের বাসিন্দা ভারতের সঙ্গে বিয়ে হয় ভারতী দে’র মেয়ে পিয়ালি দে’র। বাড়ির অমতেই বিয়ে হয় তাঁদের।
ভরতের মোবাইলের ব্যবসা আছে বলেই জানতেন পিয়ালির মা। বিয়ের পর একাধিকবার কলকাতায় এসেছে ভরত। কলকাতায় এলে ভরতকে হোটেলে রেখে বাপের বাড়িতে আসতেন পিয়ালী, কারণ এই বাড়িতে ভরতের প্রবেশাধিকার ছিল না।

গত মে মাসের শেষের দিকেও ভরত ও পিয়ালী কলকাতায় আসেন। তবে, পিয়ালির মা জানান, ”গত ১৫ দিন ধরে মেয়েকে ফোনে পাচ্ছি না। মেয়ে যদি এখন ফিরে আসতে চায় তো আসুক। কিন্তু ওই ছেলেটা এই বাড়িতে ঢুকবে না।”

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here