ব্যারাকপুরে ফের বিজেপিতে ভাঙন, ১০০০ জন কর্মীকে নিয়ে বিজেপির প্রাক্তন সাংগঠনিক জেলা সভাপতি রবিন ভট্টাচার্যের তৃণমূলে যোগদান

আমাদের ভারত, ব্যারাকপুর, ১৭ জানুয়ারি: ফের ব্যারাকপুরে বিজেপিতে ভাঙন। এবার প্রায় ১০০০ জন বিজেপি কর্মীকে নিয়ে বিজেপির প্রাক্তন সাংগঠনিক জেলা সভাপতি রবিন ভট্টাচার্য তৃণমূল বিধায়ক শোভন দেব চট্টোপাধ্যায়ের হাত ধরে তৃণমূলে যোগদান করলেন। এর আগেও তৃণমূলে ছিলেন রবিন ভট্টাচার্য। তৃণমূলে
থাকা কালীন তাঁর ওপর দুষ্কৃতী হামলা হয় এবং তিনি গুলি বিদ্ধ হন। এরপর তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগদান করেন রবিনবাবু।

এদিন এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত বিধায়ক পার্থ ভৌমিক বলেন, “রবিন ভট্টাচার্য আমাদের দীর্ঘ দিনের সঙ্গী। তবে তিনি যার সাথে অসন্তোষের জেরে তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে গিয়েছিলেন পরবর্তীতে সেই অর্জুন সিং এখন বিজেপির সাংসদ।” এদিন পার্থ ভৌমিক নাম না করে সাংসদ অর্জুন সিং’য়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ করে বলেন, “তৃণমূলের তৎকালীন নেতা রবিন ভট্টাচার্যকে ষড়যন্ত্র করে গুলি করেছিল যে ব্যক্তি সে এখন বিজেপির সাংসদ। তবে রবিন ভট্টাচার্য আবার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উন্নয়নে ছাতার তলায় এলেন। আমরা আবার এক সাথে কাজ করবো।”

এদিন বিজেপি ছেড়ে আসা রবিন ভট্টাচার্য বলেন,
“বিজেপিতে গেছিলাম যার প্রতি ক্ষুব্ধ হয়ে, সে এখন বিজেপির সাংসদ। আমি সংগঠন করতে ভালোবাসি। বিজেপিতে তাই গেছিলাম সংগঠন করছিলাম কিন্তু ওখানে ক্রমশ কাজের সুযোগ হারিয়ে যাচ্ছে। আমি সংগঠন করতে পারছিলাম না। বিজেপি সাংগঠনিক দল, সভাপতিই শেষ কথা বলে আমি জানতাম। কিন্তু বাস্তবে বিজেপিতে সভাপতিই শেষ কথা বলে না সাংসদ শেষ কথা বলেন। আমি তৃণমূলে ফিরে এসেছি দলের কাজ করতে চাই। দল যা দায়িত্ব দেবে পালন করব।”

এদিনের এই যোগদানের অনুষ্ঠানে শোভন দেব চট্টোপাধ্যায় পার্থ ভৌমিক ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন বিধায়ক রাজ চক্রবর্তী, টিটাগর এবং ব্যারাকপুর পৌরসভা মুখ্য প্রশাসক উত্তম দাস ও প্রশান্ত চৌধুরী, বিধায়ক সুবোধ অধিকারী।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here