স্ত্রীর সঙ্গে বন্ধুর বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক সন্দেহে বন্ধুর মাকে বাঁশ দিয়ে পিটিয়ে খুন, আটক ৪

আমাদের ভারত, উত্তর ২৪ পরগণা, ১৪ মে: স্ত্রীর সঙ্গে বিবাহ-বহির্ভূত সম্পর্ক, সেই সন্দেহে বন্ধু ও তার মাকে বাঁশ দিয়ে বেধড়ক মারধরের অভিযোগ উঠল বন্ধু ও তার পরিবারের বিরুদ্ধে। মারধরে মৃত্যু হয় বন্ধুর মায়ের। বৃহস্পতিবার সকালে ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর ২৪ পরগনার পেট্রাপোল থানার ভবানীপুর এলাকায়। মৃত মহিলার নাম মলিনা বিশ্বাস (৫২)। আহত যুবক সঞ্জীব মন্ডল বনগাঁ মহকুমা হাসপাাতালে ভর্তি।

পুলিশ সূত্রের খবর, অভিযুক্ত যুবক বিপ্লব বাইন ওরফে গোবিন্দ তার স্ত্রীর সঙ্গে প্রতিবেশী বন্ধু সঞ্জিবের বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক ছিল। মাঝে মধ্যেই নাকি তার স্ত্রীকে সঞ্জিব ফোন করে কথা বলতো। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে বিপ্লব তার স্ত্রীকে ঘরে না দেখতে পেয়ে, সকাল সাড়ে আটটা নাগাদ একটি বাঁশের চেলা নিয়ে সঞ্জিবের বাড়ি চড়াও হয়। সঞ্জিবের মা ঘর থেকে বেরতেই বাঁশ দিয়ে তার মাথায় আঘাত করে। এরপর বিপ্লবের মা গীতা বাইন ও পিসি ছায়া মণ্ডল রক্তাক্ত সঞ্জিবের মা মলিনা বিশ্বাসকে মাটিতে ফেলে মারধর করে বলে অভিযোগ। চিৎকার শুনে সঞ্জিব বাইরে এলে তাকেও বাঁশ দিয়ে বেধড়ক মারধর করা হয় বলে অভিযোগ। এরপর স্থানীয় বাসিন্দারা মা ও ছেলেকে বনগাঁ মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসারা মলনাদেবীর মৃত্যু হয়েছে বলে জানায়। ছেলে সঞ্জিত বিশ্বাস পেট্রাপোল থানায় গোবিন্দ ও তার ও পরিবারের সদস্যের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করে। পুলিশ ঘটনার তদন্তে নেমে তিনজনকে আটক করে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here