রেশনে ফুড কুপনের ওপর এবার থেকে বারকোড থাকবে, নয়া সিদ্ধান্ত রাজ্যের

রাজেন রায়, কলকাতা, ২১ সেপ্টেম্বর: ফুড কুপন থাকা সত্ত্বেও কমবেশি বরাদ্দের অভিযোগ উঠছিল। তাই রেশন অফিসের সরাসরি নজরদারিতে রাখতে এবার খাদ্যসাথী প্রকল্পের ফুড কুপন নিয়ে নয়া সিদ্ধান্ত নিল রাজ্য। রেশন গ্রাহকদের বরাদ্দ নিশ্চিত করতে এবার ফুড কুপন ওপর বারকোড দেওয়া থাকবে। এই মর্মে নির্দেশিকা জারি করেছে রাজ্য খাদ্য দফতর।

লকডাউনের সময় রাজ্য সরকার বিনামূল্যে রেশনের ব্যবস্থা করলেও ডিজিটাল রেশন কার্ড না থাকায় অনেকেই রেশন পাচ্ছিলেন না। শেষ পর্যন্ত মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে তাঁদের জন্য খাদ্যসাথী ফুড কুপন চালু করে রাজ্য সরকার। ২০২১ সালের জুন মাস পর্যন্ত ফুড কুপন চালু থাকবে। কিন্তু সেখানেও কমবেশি বরাদ্দের অভিযোগ উঠছিল।

দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, এতদিন কুপনে ক্রমিক নম্বর দেওয়া থাকত। নয়া নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, ফুড কুপনে বারকোড থাকতেই হবে। রেশন দোকানে বসানো এফপিএস মেশিনে বারকোড ঠেকানো মাত্র সেই গ্রাহক এবং তাঁর পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের তথ্য দেখতে পারবেন রেশন ডিলার।

কুপনে পদাধিকার উল্লেখে সরকারি অফিসারের ছাপানো সইও থাকবে। কর্তৃপক্ষের অনুমোদন নিয়ে খাদ্য দফতরের ইনস্পেক্টররা নিজেরা লগ-ইন করে ফুড কুপন ছাপিয়ে নিতে পারবেন। কুপন ছাপানো হয়ে গেলেই সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির ফোনে একটা এসএমএস আসবে।
সেই মতো তিনি ফুড ইনস্পেক্টর, বিডিও, এসসিএফএস কিংবা আরও অফিস থেকে কুপন সংগ্রহ করতে পারবেন। ওই বারকোড থেকেই ডিজিটাল পদ্ধতিতে বোঝা যাবে গ্রাহক কতটা শস্য নিয়েছেন। এতে ফুড কুপনধারী গ্রাহকের রেশন তথ্য সম্বন্ধে স্বচ্ছতা বজায় থাকবে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here