শান্তিপুরে শবযাত্রা পরিণত হল শোভাযাত্রায়

স্নেহাশীষ মুখার্জি, আমাদের ভারত , নদীয়া , ৫ মার্চ:
এক বৃদ্ধার শবযাত্রা পরিণত হল শোভাযাত্রায়। মাইক লাগিয়ে তাসা, ক্যাসিও বাজিয়ে চলল শবযাত্রা। বাজনার সঙ্গে নাচে শামিল হলেন বৃদ্ধার আত্মীয়স্বজন।

বাজনার সঙ্গে নাচ। মাইকের আওয়াজ শুনে এক্সারা বেরিয়ে এসেছিলেন প্রথমে তারা কোনও শোভাযাত্রা ভেবেছিলেন। পরে ভুল ভেঙে দেখেন শোভাযাত্রা নয় শব যাত্রা। শান্তিপুরের বিশ্বাস পরিবারের জটিলা বিশ্বাসের। পরিবারসূত্রে জানা যায়, মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ১২২ বছর। কিন্তু সরকারি হিসাবে ১০০ বছর। কারন সরকারি পরিচয়পত্র তৈরির ক্ষেত্রে বিভিন্ন অসুবিধার কারণে তাঁর এই বয়সের গরমিল হয় বলে পরিবারের দাবি।

বৃদ্ধার ইচ্ছে ছিল তাঁর মৃত্যুর পর যেন বাদ্যযন্ত্র সহকারে হাসিমুখে বিদায় দেয়। গতকাল তিনি দেহ রেখেছেন। আজ শোভাযাত্রা করে তাঁর দেহ শ্মশানে নিয়ে যাওয়া হয়। শেষ যাত্রায় তাসা বাজিয়ে নাচ করতে করতে শ্মশান যান সকলে।

শান্তিপুর পৌরসভা ২ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা জটিলা বিশ্বাসের বয়স জনিত কারণে মৃত্যু হয়। জটিলা বিশ্বাসের তিন ছেলে রয়েছে। জটিলা বিশ্বাসের শবদেহ গাড়িতে নয় প্রাচীন রীতি মেনে কাঁধে করে নিয়ে যাওয়া হয়। ইলেকট্রিক চুল্লিকে দূরে সরিয়ে কাঠের চুল্লীতে শব দাহ করা হয়। জটিলা বিশ্বাস বলেন, আমরাও প্রথমে এই বিষয়টি মেনে নিতে পারছিলাম না। কিন্তু পরে বুঝলাম দুঃখ কষ্ট না পেয়ে এভাবে পরলোকগমন সত্যিই তো আনন্দের ব্যাপার। সেই কারণেই এমন ভাবনা। জটিলা বিশ্বাসের শেষ ইচ্ছা পূর্ণ করলেন তাঁর পরিবারবর্গ।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here