চিনকে কড়া জবাব দিতে তৈরি! উরি সার্জিক্যাল স্ট্রাইকের “ঘাতক” কমান্ডোরা এবার লাদাখে

আমাদের ভারত, ২৯ জুন: লাদাখ সীমান্তে উত্তেজনা কোনও ভাবেই কমছে না। ভারত ও চিন উভয়েই সীমান্তে নিজেদের শক্তি বাড়াচ্ছে ক্রমাগত। এলএসিতে চিন মার্শাল আর্ট প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত বাহিনী মোতায়েন করেছে।আর তার পাল্টা জবাব দিতে ভারতের ঘাতক কামান্ডোরাও তৈরি। এই ঘাতক কমান্ডোরাই উরি সার্জিক্যাল স্ট্রাইক সফল করেছিল।

১৪ জুন পুর্ব লাদাখের গালওয়ান উপত্যকায় রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আগে চিন তিব্বত থেকে মার্শালাট প্রশিক্ষকদের সেনাবাহিনীতে নিয়োগ করে। চিনা বাহিনীকে প্রশিক্ষণ দেওয়ার জন্য তিব্বতে পাঠানো হয়েছে আরো কুড়ি জন মার্শল আর্টের প্রশিক্ষককে। চিনের এই রণনীতি সামনে আসতেই প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখায় পাল্টা ঘাতক কমান্ডোদের মোতায়েন করেছে ভারতীয় সেনাবাহিনী।

উঁচু পাহাড়ে ঘেরা দুর্গম ক্ষেত্রগুলিতে দুর্বোধ্য এলাকায় এরা পৌঁছে যায়। সেই বিশেষ প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত সেনা ও কমান্ডোকে মোতায়েন করা হয়েছে পূর্ব লাদাখে। কাশ্মীর থেকে লাদাখে পাঠানো হয়েছে দুটি প্যারা কমান্ডো ইউনিটকে। পাঠানো হয়েছে অতিরিক্ত ৭ ব্যাটেলিয়ান সেনা। তার সাথে এবার পাঠানো হচ্ছে ভারতীয় সেনার ঘাতক বাহিনীর কমান্ডোদের। চোখের নিমেষে কাজ করতে সক্ষম এই ঘাতক বাহিনী খালি হাতেও শত্রু নিধনের ক্ষমতা রাখে।

২০১৫ সালে ৪০ মিনিটে মায়ানমারে ঢুকে গোটা একটি জঙ্গী দলকে শেষ করে ফিরে এসেছিল এই ঘাতক বাহিনী। ক্ষিপ্রতা ও দক্ষতায় এরা সেরা। ইসরাইলের বিশেষ কমান্ডোদের আদলে প্রশিক্ষিত করা হয়েছে এই ঘাতক বাহিনীকে।

ভারতীয় সেনার সবচেয়ে বড় সার্জিক্যাল স্ট্রাইক হয়েছিল এই ঘাতক কমান্ডো বাহিনীর হাত ধরেই। বায়ুসেনা চপারে প্যারাসুটে নামিয়ে দেওয়া হয়েছিল এদের নিয়ন্ত্রণ রেখার ওপারে। সেখান থেকে জঙ্গলের পথে পায়ে হেঁটে জঙ্গি ঘাঁটিতে পৌঁছেছিল তারা। রাতের অন্ধকারে জঙ্গিদের উপর ঝাঁপিয়ে পড়েছিল ভারতীয় সেনার ঘাতক কমান্ডোরা। উড়িতে জঙ্গিহানার প্রতিশোধ নিয়ে ইতিহাস রচনা করে সার্জিক্যাল স্ট্রাইক করেছিল এই ঘাতক বাহিনী।

টেক অফ, প্যারা ট্রুপার, স্ক্রোলিং, হাইডিং, প্রত্যাবর্তন নিখুঁতভাবে পাক অধিকৃত কাশ্মীরে জঙ্গিদের লঞ্চপ্যাড ধ্বংস করেছিল এই ঘাতক কমান্ডার বাহিনী। কর্নাটকের বেলগামে এদের ট্রেনিং দেওয়া হয় দুর্গম এলাকায় অভিযানের জন্য । শারীরিক ক্ষমতা বাড়াতে প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হয়ে থাকে এদের জন্য। ৩৫ কিলো ওজন কাঁধে নিয়ে ৪০ কিলোমিটার দৌড়াতে সক্ষম এই কামান্ডোরা। এই কমান্ডরা প্রত্যেকেই মার্শাল আর্টে দক্ষ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here