বাধা দেওয়ায় স্বর্ণ ব্যাবসায়ীকে ভজালির কোপ, কাঁকসায় সোনার দোকানে ডাকাতি, চাঞ্চল্য

জয় লাহা, আমাদের ভারত, দুর্গাপুর, ২৪ অক্টোবর: ভর সন্ধ্যায় সোনার দোকানে ডাকাতি। বাধা দেওয়ায় স্বর্ণ ব্যাবসায়ীকে ভোজালির কোপ। গুলি চালাতে চালাতে চম্পট দেয় দুষ্কৃতীরা। রবিবার সন্ধ্যায় চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে কাঁকসার ত্রিলোকচন্দ্রপুর বাসস্ট্যান্ডে। তাপস দত্ত নামে আক্রান্ত ওই স্বর্ণ ব্যাবসায়ী রাজবাঁধের একটি বেসরকারি হাসপাতালে গুরুতর জখম অবস্থায় চিকিৎসাধীন। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। 

ঘটনায় জানাগেছে, কাঁকসার ত্রিলোকচন্দ্রপুর মোড়ে রয়েছে তাপস দত্ত নামে ওই স্বর্ণ ব্যাবসায়ীর গয়নার দোকান। অন্যান্য দিনের মত এদিনও সন্ধ্যায় দোকান বন্ধ করে ত্রিলোকচন্দ্রপুর গ্রামে সোনার গয়না ভর্তি ব্যাগ নিয়ে শ্বশুরবাড়িতে রাখতে যাওয়ার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন তিনি। অভিযোগ, আচমকা একদল সশস্ত্র ডাকাত তার দোকানে ঢোকে। লক্ষাধিক টাকার সোনার গয়নার ব্যাগ নিয়ে চম্পট দেওয়ার চেষ্টা করলে বাধা দেন তাপসবাবু। বাধা দেওয়ায় তাপসবাবুকে ভজালির কোপ দেয় এবং গয়না ভর্তি ব্যাগ নিয়ে চম্পট দেয়।

স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, “দুষ্কৃতীরা পালানোর সময় বেপরোয়া গুলি চালাতে শুরু করে। পিছনের ফাঁকা মাঠ দিয়ে চম্পট দেয়। দোকানের মধ্যে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে যায় তাপসবাবু। স্থানীয়রা গুরুতর জখম অবস্থায় উদ্ধার করে রাজবাঁধের একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করে। তাপসবাবুর হাতে গুরুতর আঘাত হয়েছে। এদিকে গোটা ঘটনায় চরম আতঙ্ক ছড়িয়েছে এলাকায়।

স্থানীয় বাসিন্দা ও ব্যবসায়ীদের অভিযোগ, এদিনের ঘটনা নিয়ে তিনবার তাপসবাবুর দোকানে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। এদিকে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় কাঁকসা থানার পুলিশ। গোটা এলাকায় পুলিশের মোবাইল টহল আরও বাড়িয়েছে। উল্লেখ্য, বছরখানেক আগে বুদবুদের সুকান্ত নগরে এক স্বর্ণ ব্যাবসায়ীকে গুলি করে গয়না ভর্তি ব্যাগ নিয়ে চম্পট দেয় দুষ্কৃতীরা। তারপর কাঁকসার এই ঘটনায় রীতিমতো আতঙ্কে ব্যাবসায়ী মহল। যদিও পুলিশ জানিয়েছে, ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে। বিভিন্ন নাকা চেকিং তল্লাশি বাড়ানো হয়েছে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here