গুজরাট বাংলা শাসন করবে না, জামানত বাজেয়াপ্ত করিয়ে উচিত শিক্ষা দিন, হুঙ্কার মমতার

রাজেন রায়, কলকাতা, ২১ জুলাই: ২০২১ বিধানসভা ভোটের আগের শেষ ২১ জুলাইতে বিরোধী দল বিজেপিকে রাজনৈতিক নিশানা যে করবেন তৃণমূলনেত্রী, সে কথা জানাই ছিল। আর সেইমতই নাম না করে বিজেপি সরকার রাজ্যে রাজ্যে নির্বাচিত সরকার ভেঙে এক দেশ এক পার্টি করার লক্ষ্যে নেমেছে বলে স্পষ্ট অভিযোগ করলেন তিনি। একই সঙ্গে হুঙ্কার দিলেন, ‘গুজরাট বাংলা শাসন করবে না, জামানত বাজেয়াপ্ত করিয়ে উচিত শিক্ষা দিন।’

মুখ্যমন্ত্রী সাম্প্রতিক সময়ে রাজস্থানের রাজনীতির প্রসঙ্গ টেনে বলেন,’টাকা ছড়িয়ে বিভিন্ন রাজ্যে সরকার ভাঙার খেলায় মেতেছে ওরা। এই টাকা সাধারণ মানুষের হকের টাকা। মধ্যপ্রদেশে নির্বাচিত সরকার ভেঙে দেওয়া হয়েছে, কর্ণাটকে হয়েছে, রাজস্থানে এখন সেই চেষ্টা চলছে। তাহলে আর নির্বাচন কমিশন থাকার প্রয়োজন কী! দেশে রাষ্ট্রপতি শাসন জারি করে দিক।’ তারপরেই তাঁর হুঙ্কার, ‘বাংলায় সরকার ভাঙার চেষ্টা বরদাস্ত করবে না রাজ্যের মানুষ। বহিরাগতরা বাংলা শাসন করবে না। বাংলার মানুষই বাংলা শাসন করবে।’

তৃণমূল নেত্রীর কথায়, আট বছর সময়ে রাজ্যকে ঘিরে কত স্বপ্ন দেখেছি, সেগুলোকে বাস্তব রূপ দেওয়ার চেষ্টা করেছি। আর একটা দল গত নির্বাচনে কয়েকটা আসন পেয়ে বিশাল লম্পঝম্প শুরু করে দিয়েছে। কেন্দ্রীয় এজেন্সি দিয়ে নির্বাচিত সরকারকে বিব্রত করার চেষ্টা চলছে। করোনার সুযোগে যা ইচ্ছে তাই করা হচ্ছে।’

তিনি হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন,’মনে রাখবেন আমি গুলি-বন্দুককে ভয় পাই না। অনেক মার খেয়ে এই জায়গায় এসেছি। সিপিএমের আমলে শারীরিক নিগ্রহের অনেক বার শিকার হয়েছি। আর এই সরকারের তরফে জুটছে লাঞ্ছনা, গঞ্জনা। কেন্দ্রে ক্ষমতায় আছে বলে গায়ের জোর! এরা সারাক্ষণ শুধু সর্বনাশের কথা বলে। রাজ্যে গুন্ডামি, দাঙ্গা, আগুন জ্বালানোর কথা বলে। এনআরসি-এনপিআর-সিএএনিয়ে কি দাঙ্গা করছিল ভুলে গেছেন? রাজ্যে ১৮টা সিট জিতে মনে করছে গোটা বিশ্ব জয় করে ফেলেছে। ওই আসনগুলোতে মানুষের জন্য কী করেছে? তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মীদের বলব ২০২১ সালে ওদের জামানত জব্দ করে বিজেপিকে বাংলাছাড়া করুন। একুশে বাংলাকে অপমানের সমস্ত বদলা নেব।’

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here