ভোররাতে ঘুম থেকে তুলে রানাঘাটের বিজেপি সাংসদকে হোম কোয়ারেন্টিনে যাওয়ার চিঠি ধরাল

নীল বনিক, আমাদের ভারত, ২৭ মে: নদীয়া জেলা স্বাস্থ্য দপ্তর রানাঘাটের বিজেপির সাংসদ জগন্নাথ সরকারকে হোম কোয়ারেন্টিনের জন্য চিঠি পাঠালো। এমনটাই অভিযোগ করলেন বিজেপি সাংসদ জগন্নাথ সরকার। আজ ভোররাত তিনটা নাগাদ ঘুম থেকে তুলে তাঁকে চিঠি দেওয়া হয় বলে গুরুতর অভিযোগ তুলেছেন তিনি। তবে সেই চিঠি রিসিভ করেননি বলে জানান জগন্নাথ সরকার।

তিনি বলেন, আমি সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখেই নবদ্বীপ, স্বরুপগঞ্জ এলাকায় পরিযায়ি শ্রমিকদের সঙ্গে কথা বলেছি। নবদ্বীপের কোয়ারেন্টাইনে থাকা পরিযায়ী শ্রমিকদের অভাব, অভিযোগ নিয়ে তাদের সাথে কথা বলি। অনেকেই তাদের নানা দুর্দশার কথা আমার কাছে জানান। তার পরিপ্রেক্ষিতেই জেলা স্বাস্থ্য দপ্তর আমাকে হোম কোয়ারেন্টিনে থাকার নির্দেশ দেয়। আমাকে ঘুম থেকে তুলে মঙ্গলবার ভোর ৩টের সময় এই বিষয়ে চিঠি ধরাতে আসে। বিজেপি নেতার অভিযোগ, ”রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে আমাকে এই চিঠি ধরানো হয়েছে।” জগন্নাথবাবু বলেন, যদি আমায় ঘরে থাকতে হয় বা কোয়ারান্টিনে যেতে হয় তাহলে নবদ্দীপ পৌরসভার চেয়ারম্যান বিমান কৃষ্ণবাবুও সেখানে গিয়েছিলেন। আমার সঙ্গে নবদ্বীপ পুরসভার চেয়ারম্যানকেও হোম কোয়ারেন্টাইন চিঠি ধরতে হবে বলে জানান রানাঘাটের বিজেপি সাংসদ।

রাতে ঘুম থেকে তুলে চিঠি ধরানোর তীব্র প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন জগন্নাথবাবু, তিনি বলেন আমি কোনও অপরাধী না আসামি যে আমাকে তিনটার সময় ঘুম থেকে তুলে চিঠি ধরানো হবে? আমার সিকিউরিটি এবং অন্য যারা ছিল সঙ্গে তাদের কি চিঠি ধরানো হয়েছে। যদি প্রয়োজন হয় তাহলে আমার লালা রস নিয়ে কেন পরীক্ষা করা হচ্ছে না? আসলে তৃণমূল নোংরা রাজনীতি করছে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here