কাশ্মীরে জঙ্গি দমনে শহীদ কর্নেল সহ পাঁচ জওয়ান, “শহীদদের বলিদান ভুলবে না দেশ” শোক জ্ঞাপন প্রধানমন্ত্রীর

আমাদের ভারত, ৩ মে : কাশ্মীরের হান্দওয়াড়ায় জঙ্গি খতম করতে গিয়ে এক কার্নেল সহ ৫ নিরাপত্তা বাহিনীর জওয়াবানের শহীদ হওয়ার ঘটনায় শোক প্রকাশ করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সোশ্যাল মিডিয়ায় নিহতদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন,” শহীদদের সাহস এবং বলিদান দেশ কখনোই ভুলবেনা দেশ।”

জঙ্গিদের হাতে পণবন্দী কাশ্মীরিদের উদ্ধার করতে গিয়েই শহীদ হন কর্নেল আশুতোষ শর্মা সহ চার সেনা জওয়ান। এছাড়াও জম্মু-কাশ্মীর পুলিশ সাব-ইন্সপেক্টর জঙ্গি মোকাবিলায় নিহত হয়েছেন। তবে নিরাপত্তা বাহিনীর পাল্টা জবাবে খতম হয়েছে দুই জঙ্গিও।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী টুইট করে লিখেছেন, হান্দওয়ারায় শহীদ হওয়া বীর সেনা এবং নিরাপত্তা বাহিনীর জওয়ানদের আমি শ্রদ্ধা জানাই। তাদের সাহস এবং বলিদানকে কোনদিনও ভোলা যাবেনা। তারা দেশ সেবায় নিজেদের উৎসর্গ করার চূড়ান্ত নিদর্শন দিয়েছেন। নিরন্তর কাজ করে গেছেন দেশবাসীর নিরাপত্তা রক্ষায়। তাদের পরিবার ও বন্ধুদের প্রতি আমি সমবেদনা জানাই।”

রাজওয়ার জঙ্গলের কাছে ছাঙ্গি মুল্লার একটি বাড়িতে দুজন জঙ্গী একটি পরিবারের কয়েকজন সদস্যকে পণবন্দি করেছে বলে খবর ছিল। সেই খবরের ভিত্তিতেই অভিযানে নামে সেনা ও পুলিশের যৌথ বাহিনী। কর্নেল আশুতোষ শর্মার নেতৃত্বে ২১ নম্বর রাষ্ট্রীয় ব্যাটালিয়নের একটি দল এবং পুলিশকর্মীরা ওই এলাকা ঘিরে ফেলে। এরপর পণবন্দীদের উদ্ধারে এগিয়ে যান কয়েখ জন সেনা ও পুলিশকর্মী। নিজেদের জীবনের বাজি রেখেই কার্নেল আশুতোষ শর্মা নেতৃত্বে মেজর অনুদ সুদ, নায়েক রাজেশ কুমার, ল্যান্স নায়েক দিনেশ সিং এবং পুলিশের সাব-ইন্সপেক্টর সাকিল কাজি জঙ্গিদের একেবারে সম্মুখে পৌঁছান। পণবন্দী কাশ্মীরিদের নিরাপদে উদ্ধার করেন তারা। খতম হয় স২ জঙ্গি। কিন্তু জঙ্গিদের গুলিতে শহীদ হন কর্নেল সহ পাঁচ জওয়ান।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here