পশ্চিমবঙ্গের সমস্ত সরকারি হাসপাতালে সব রোগীর করোনা পরীক্ষা বাধ্যতামূলক করার নির্দেশ স্বাস্থ্য ভবনের

রাজেন রায়, কলকাতা, ২৯ সেপ্টেম্বর: কি কি কারণে করোনা রোগীর সুস্থ হওয়ার পরেও মৃত্যু হতে পারে, তা পর্যালোচনা শুরু করেছে স্বাস্থ্য দফতর। কিছুদিন আগেই শ্বাসকষ্টের সম্ভাবনা যাচাই করতে যক্ষা রোগীদের করোনা পরীক্ষা করতে নির্দেশ দিয়েছিল স্বাস্থ্য দফতর। এবার সারি বা সিভিয়ার অ্যাকিউট রেস্পরেটরি ইলনেস’ থাকা রোগীদের রাজ্যের সমস্ত হাসপাতালে করোনা পরীক্ষার নির্দেশ দিল স্বাস্থ্য দফতর।

প্রসঙ্গত, সাধারণ করোনা পরীক্ষার পাশাপাশি
ইতিমধ্যেই বাড়ি বাড়ি গিয়ে প্রায় ৮৭০০ শ্বাসকষ্টের রোগীকে চিহ্নিত করেছেন রাজ্য সরকারের কর্মীরা। স্বাস্থ্য দফতরের তরফে জানানো হয়েছে, এই ধরনের পরীক্ষা চালালে আগাম করোনা শনাক্তকরণ সম্ভব হবে। ফলে শুধু সংক্রমণ নয়, মৃত্যুহারও অনেকটাই কমে আসবে। আর হাসপাতালে সমস্ত রোগীর করোনা পরীক্ষা হলে সংক্রমিতদের খুব সহজে শনাক্ত করে চিকিৎসা শুরু করা যাবে।

এই মুহূর্তে রাজ্যে করোনায় মৃত্যুহার অনেকটাই কমে
১.৯ শতাংশ। কিন্তু তারপরও পশ্চিমবঙ্গে করোনায় মৃত্যুর হার জাতীয় গড়ের তুলনায় বেশি। বর্তমানে দেশে করোনায় মৃত্যুর হার ১.৫ শতাংশ। সেই কারণে করোনা রোগীর কো-মরবিডিটি সব রকম উপসর্গকে চিহ্নিত করে মৃত্যুহার কমাতে চেষ্টা চালাচ্ছে স্বাস্থ্য দফতর।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here