বালুরঘাটে স্বাস্থ্য দপ্তরের অনীহায় করোনা টেস্টের চারটি অত্যাধুনিক মেশিন ফিরে যাবার অভিযোগ, হতাশ সাংসদ

পিন্টু কুন্ডু, বালুরঘাট, ৩১ জুলাই: করোনা টেস্টের ৪টি অত্যাধুনিক মেশিন দিতে চেয়েও স্বাস্থ্য দপ্তরের সাড়া পেলেন না বালুরঘাটের সংসদ। মেশিন নিতে অনীহা স্বাস্থ্য দপ্তরের, অঅভিযোগ সাংসদের। হতাশ সুকান্ত মজুমদার। করোনা মোকাবিলায় দক্ষিণ দিনাজপুর জেলায় সোয়াব টেস্টের জন্য অত্যাধুনিক “আরটিপিসিআর” মেশিন নিতে অনীহা জেলা স্বাস্থ্য দপ্তরের। সংসদের আগ্রহের ৬ দিন পরেও কোনো সদুত্তর দেয়নি স্বাস্থ্য দপ্তর বলে অভিযোগ সুকান্ত মজুমদারের। সংসদ জানিয়েছেন, জেলা স্বাস্থ্য দপ্তরের ভূমিকায় তিনি আশাহত।

দক্ষিণ দিনাজপুরে দিনের পর দিন করোনা সক্রমণ বাড়লেও সোয়াব পরীক্ষার তেমন কোনও টেস্টিং মেশিন নেই জেলাতে। জেলা স্বাস্থ্য দফতরকে যার কারণে পুরোটাই নির্ভর করতে হচ্ছে বাইরের জেলার পরীক্ষাগারের উপর। সেদিকে লক্ষ্য রেখে এবং জেলার মানুষকে এই করোনা পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্য পরিষেবা দেবার জন্য সাংসদের আবেদনের ভিত্তিতে একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন জেলায় ২২ লক্ষ টাকা দামের ৪টি
“আরটিপিসিআর” মেশিন বসাতে এগিয়ে এসেছে। তার পরেও স্বাস্থ্য দপ্তর তা নেওয়ার বিষয়ে কোনো উদ্যোগ দেখায়নি। তাই বাধ্য হয়ে তিনি পুনরায় স্বাস্থ্য দপ্তরকে রিমাইন্ডার চিঠি করেছেন। আগামী ৭ দিনের মধ্যে ওই মেশিন না নিলে অন্য রাজ্যে তা দিয়ে দেবে ওই বেসরকারি সংস্থা।

সুকান্ত মজুমদার বলেন, করোনা নিয়ে যখন উদ্বিগ্ন পরিস্থিতি তখন চিঠি দিয়ে জানানোর পরেও অত্যাধুনিক সেই মেশিন নিতে আগ্রহ প্রকাশ করেনি জেলা প্রশাসন। বিষয়টি নিয়ে তিনি যথেষ্টই হতাশ হয়েছেন। জেলার মানুষের সুবিধার্থে বিপুল অঙ্কের ওই মেশিনগুলি আগামী কয়েকদিনের মধ্যে স্বাস্থ্য দপ্তর না নিলে তা উত্তরপ্রদেশে চলে যাবে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here