রাজ্যে ২৪ ঘন্টায় সর্বাধিক মৃত্যু ৩৬! রেকর্ড আক্রান্ত ২২৭৮, সুস্থ ১৩৪৪

রাজেন রায়, কলকাতা, ১৯ জুলাই: রাজ্যে চূড়ান্ত গতিতে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। সংক্রমণের দৈনিক রেকর্ড ভাঙা এতদিন তো হচ্ছিল, এবার ভেঙে গেল দৈনিক মৃত্যুর রেকর্ডও। রবিবারে প্রকাশিত বুলেটিন অনুযায়ী, রাজ্যে ২৪ ঘন্টায় নতুন আক্রান্তের হদিশ মিলেছে রেকর্ড সংখ্যক ২২৭৮ জনের। মৃত্যু হয়েছে ৩৬ জনের। ২৪ ঘন্টায় সুস্থ হয়েছেন ১৩৪৪ জন। মৃত্যু সংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় উদ্বিগ্ন স্বাস্থ্য আধিকারিকরা।

২২৭৮ নতুন আক্রান্তের ফলে পশ্চিমবঙ্গে মোট সংক্রমণ ৪২৪৮৭ জনের। একই সঙ্গে নজিরবিহীন ভাবে রাজ্যে ২৪ ঘন্টায় সুস্থ হয়েছেন রেকর্ড সংখ্যক ১৩৪৪ জন সুস্থ হওয়ায় রাজ্যে মোট সুস্থ সংখ্যা ২৪৮৮৩ জন। ২৪ ঘন্টায় আরও ৩৬ জনের মৃত্যুতে মোট মৃত্যু ১১১২ জনের।

এদিন অন্যান্য জেলার সঙ্গে কলকাতাতে এদিন ৫২৭ জন, উত্তর ২৪ পরগনায় ৪৬৫ জন, হাওড়ায় ৫৫ জন, দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ১০৪ জন সুস্থ হয়েছেন। কিন্তু বিপুল সংক্রমণের পর সুস্থের সংখ্যা বাড়ায় হার অপরিবর্তিত রয়েছে ৫৮.৫৬ শতাংশে। এই মুহূর্তে রাজ্যে করোনা আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন ১৬৪৯২ জন। তার মধ্যে এদিন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রোগীর সংখ্যা বেড়েছে ৮৯৮ জনের।

বুলেটিনে আরও জানানো হয়েছে, এদিন পর্যন্ত রাজ্যের ৫৪টি ল্যাবে মোট করোনা টেস্টের সংখ্যা ৭০৩২৮৪ জনের। তার মধ্যে ২৪ ঘন্টায় রাজ্যে করোনা পরীক্ষা হয়েছে ১৩৪৭১ জনের। রাজ্যের ৮১টি করোনা হাসপাতাল, ২৭টি সরকারি এবং ৫৪টি বেসরকারি হাসপাতালে মোট ১১১৭৯টি বেড আছে, আইসিইউ পরিষেবা রয়েছে ৯৪৮ জনের। ভেন্টিলেটর রয়েছে
৩৯৫টি। তার ৩৬.৭৬ শতাংশ রোগী ভর্তি আছেন।

সরকারি ৫৮২টি কোয়ারেন্টাইনে এখন রয়েছেন ৩৭৩২ জন। ছেড়ে দেওয়া হয়েছে ১০৩৩৪৮ জনকে। হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন ৩১৩২০ জন। ছেড়ে দেওয়া হয়েছে ৩৪৫৬২১ জনকে। শ্রমিক স্পেশাল ট্রেন ফেরত পরিযায়ী শ্রমিকদের তথ্যে জানানো হয়েছে, সমস্ত কোয়ারেন্টাইন সেন্টার থেকে পরীক্ষা করে ২৭৬২৭৪ জন শ্রমিককেই কোয়ারেন্টাইন সেন্টার থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। রাজ্যে সেফ হোম ও তার বেড সংখ্যা এবং সেখানে রোগীদের সংখ্যা উল্লেখ করে বলা হয়েছে, রাজ্যের ১০৬টি সেফ হোমে ৬৯০৮টি বেড রয়েছে এবং তাতে ৬০৮ জন রোগী রয়েছেন।

এছাড়া এদিনের বুলেটিনে জেলাওয়াড়ি তথ্যে জানানো হয়েছে, এর মধ্যে কলকাতায় রেকর্ড সংক্রমণ ৬৬২ জন, উত্তর ২৪ পরগনায় রেকর্ড ৫৪৪ জন। মৃত ৩৬ জনের মধ্যে ১৫ জন কলকাতার, ৯ জন উত্তর ২৪ পরগনার। কলকাতায় এদিন রেকর্ড সংখ্যক ৬৬২ আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ায় মোট সংক্রমণ ১৩৩৪৪ জনের। এদিন কলকাতায় আরও ১৫ জনের মৃত্যু হওয়ায় কলকাতাতে মোট মৃত্যু ৫৭৬ জনের। এছাড়া এদিন উত্তর ২৪ পরগনাতেও ৫৪৪ জন সংক্রামিতের সংখ্যা বাড়ায় মোট আক্রান্ত সংখ্যা ৮৫৭৬ জন। এখানেও এদিন আরও ৯ জনের মৃত্যু হওয়ায় মোট মৃত্যু ২১৩ জন। এছাড়া হুগলিতে ৪ জন, হাওড়া ও দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ৩ জন করে, পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুর ১ জন করে আরও ১২ জন করোনা রোগীর মৃত্যু হয়েছে। এদিন অন্যান্য জেলার সঙ্গে হাওড়ায় ১৯১ জন, দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ১৫২ জন, দক্ষিণ দিনাজপুরে ১৪২ জন, মালদায় ৮৯ জন, হুগলিতে ৮৫ জনের উল্লেখযোগ্য হারে সংক্রমণ বৃদ্ধি পেয়েছে। এদিনও দক্ষিণবঙ্গের ঝাড়গ্রাম ছাড়া সংক্রমণ বেড়েছে রাজ্যের বাকি সমস্ত জেলাতেই।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here