অন্তত দুই থেকে তিন সন্তানের জন্ম দিন, নাহলে অস্তিত্ব সংকটে পড়বে হিন্দুরা, যুবসমাজকে পরামর্শ ভিএইচপি নেতার

আমাদের ভারত, ১৫ জানুয়ারি:বিয়ের পর হিন্দু যুবকদের কমপক্ষে দুটি থেকে তিনটি সন্তান জন্ম দেওয়ার পরামর্শ দিলেন বিশ্ব হিন্দু পরিষদের নেতা মিলিন্দ পারান্ডে। তার আশঙ্কা হিন্দু যুবকরা যদি দুই থেকে তিনটি সন্তানের জন্ম না দেয় তাহলে ভবিষ্যতে হিন্দুদের অস্তিত্ব সংকটে পড়ে যাবে।

মধ্যপ্রদেশের খাণ্ডোয়াতে একটি যুব সম্মেলনের আয়োজন করেছিল বিশ্ব হিন্দু পরিষদ ও বজরং দল। এই সম্মেলন মঞ্চ থেকেই যুবকদের উদ্দেশ্যে মিলিন্দ পারান্ডে বলেন, বিয়ের পর প্রত্যেক হিন্দু যুবকের সন্তান জন্ম নিয়ে ভাবা উচিত। প্রত্যেক‌ যুবকের অন্তত দুই থেকে তিনটি সন্তানের পিতা হওয়া উচিত। হিন্দুসমাজ সংকটে পড়বে যদি হিন্দু জনসংখ্যা কমে যায়।

এদিন ইংরেজি ভাবধারায় আধুনিক শিক্ষাব্যবস্থা নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন এই ভিএইচপি নেতা। তার মতে ব্রিটিশ শাসনকাল থেকে ভারতের অতীত গৌরবকে মুছে ফেলার চেষ্টা হয়েছে। তারা এমন শিক্ষা পদ্ধতি প্রণয়ন করেছিল যাতে নিজেদের অতীত ইতিহাস সম্পর্কে আত্মবিশ্বাস হারিয়ে ফেলে হিন্দুসমাজ। মিলিন্দ বলেন, “তারা আমাদের শিক্ষা ব্যবস্থাকে কলুষিত করেছে। যে সমাজ তার পূর্ব পুরুষদের জন্য লজ্জিত বোধ করে সে সমাজ বেশিদিন টিকে থাকতে পারে না।”

মিলিন্দ আরও বলেন, যখন মুসলিমদের সংখ্যা বাড়ছে তখন হিন্দুদের সংখ্যা কমে যাচ্ছে, যা বিপদজনক হয়ে উঠতে পারে হিন্দুদের জন্য। নানা আছিলায় হিন্দুদের অন্য ধর্মে ধর্মান্তরিত করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেন এই ভিএইচপি নেতা। তিনি বলেন, হিন্দু জনসংখ্যা কমলে দেশের অখন্ডতা বিপন্ন হতে পারে। অতীতেও এই পরিস্থিতি দেখা গিয়েছে। দেশ যাতে আবার ভাগ না হয় সেই জন্য হিন্দুদের সংখ্যা বাড়ানো উচিত।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here