হিঙ্গলগঞ্জে বিজেপির বুথ সহ সভাপতিকে খুনের অভিযোগ তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতিদের বিরুদ্ধে, তদন্তে পুলিশ

আমাদের ভারত, উত্তর ২৪ পরগনা, ২০ অক্টোবর: উত্তর ২৪ পরগনার বসিরহাটের হিঙ্গলগঞ্জে বিজেপি কর্মীকে খুনের অভিযোগ তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে। নিহত বিজেপি কর্মীর নাম রবীন্দ্রনাথ মন্ডল (৫৩)। সোমবার গভীর রাতে তার মৃত্যু হয়।

জানা গেছে, বসিরহাটের হিঙ্গলগঞ্জে চলতি মাসের ১৩ তারিখ তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা বিজেপি কর্মীদের উপর লোহার রড, বাঁশ, ধারালো অস্ত্র নিয়ে হামলা করে। সেই সময় মঙ্গলচণ্ডী গ্রামের ৫ জন বিজেপি কর্মী মারাত্মক জখম হন। তাদের প্রথমে যোগেশগঞ্জ প্রাথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ও পরে অবস্থার অবনতি হলে তাদের বসিরহাট জেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে বিজেপির ২৩৪ নম্বর বুথের সহ সভাপতি রবীন্দ্রনাথ মন্ডলের অবস্থার অবনতি হলে তাঁকে ভর্তি করা হয় কলকাতার এস এস কে এম হাসপাতালে। সেখানেই সোমবার গভীর রাতে মৃত্যু হয় রবীন্দ্রনাথ মন্ডলের। এই ঘটনার খবর হিঙ্গলগঞ্জ বিধানসভার হেমনগর কোস্টাল থানার মঙ্গলচন্ডী গ্রামে পৌঁছাতেই এলাকায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। হেমনগর কোস্টাল থানার পুলিশ গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।

জানা গেছে, বিজেপির কৃষি সুরক্ষা বিল ও আম্ফান দুর্নীতি নিয়ে যোগেশগঞ্জ এলাকায় একটি পথ সভার হওয়ার কথা ছিল চলতি মাসের ১২ তারিখে। তবে বিশেষ কারণবশত, পুলিশি অনুমতি না পাওয়ায় ওই পথসভা বন্ধ হয়ে যায়। এরপরে ১৩ তারিখে তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা সকালে বিজেপির দলীয় পতাকা ছিঁড়ে দিতে থাকে। প্রতিবাদ করায় স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্বদের উপর তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা চড়াও হয়। তদের মারধর করে লোহার রড, ধারালো অস্ত্র, বাঁশ দিয়ে। এর ফলে ৫ জন বিজেপি কর্মী মারাত্মক জখম হন।

প্রথমে তাদের যোগেজগঞ্জ হাসপাতালে ভর্তি করলে সেখানে তাদের অবস্থার অবনতি হওয়ায় বসিরহাট জেলা হাসপাতালে তাদের স্থানান্তরিত করা হয়। রবীন্দ্রনাথ মন্ডলকে মারাত্মক জখম অবস্থায় বসিরহাট জেলা হাসপাতাল থেকে কলকাতার এস এস কে এম পাঠানো হয়। সোমবার রাতে কলকাতা এস এস কে এম হাসপাতাল মৃত্যু হয় তাঁর।
এই ঘটনার জেরে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। পরিবারের তরফ থেকে দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছে। গোটা ঘটনায় তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা জড়িত বলে বিজেপির স্থানীয় নেতৃত্বের অভিযোগ। এই ঘটনায় দুষ্কৃতীদের অবিলম্বে গ্রেফতারের দাবিতে বিজেপি কর্মীরা আন্দোলনে নামার হুঁশিয়ারি দিয়েছে। হেমনগর কোস্টাল থানার পুলিশ এই ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here