কোষ্ঠবদ্ধতার কষ্ট থেকে মুক্তি পেতে হোমিওপ্যাথি

ডাঃ প্রশান্ত কুমার ঝরিয়াৎ
আমাদের ভারত, ১৫ মার্চ: কথায় বলে সকালে ঘুম থেকে উঠে যার পেট পরিস্কার হয়ে যায় তার কাছে সহজে কোনও রোগ ঘেঁষতে পারে না। কিন্তু আধুনিক যুগে অর্থ সর্বস্ব দুনিয়াতে কাজের সঙ্গে তাল মেলাতে গিয়ে আমাদের লাইফস্টাইল এবং খাদ্যাভ্যাস এমন ভাবে পরিবর্তিত হয়ে গেছে যে দৈনিক পেট পরিস্কার তো দূরের কথা বরং দু’তিন দিন ছাড়া ঠিক মতন পেট পরিস্কার হয় না। বাধ্য হয়ে আমরা বাজারচলতি ল্যাক্সেটিভ গুলি ব্যবহার করি যার ভবিষ্যত পরিনতি হয় আরও খারাপ, শরীরের মল নিষ্ক্রমণের নিজস্ব স্বাভাবিক প্রক্রিয়াটি ব্যাহত হয়।
এখন আসুন আমরা দেখি কী কী কারনে কোষ্ঠবদ্ধতা হতে পারে।

অনিয়মিত খাদ্যাভ্যাস ও অপরিমিত জল পান করা।
দৈহিক পরিশ্রমের অভাব।
অতিরিক্ত ফাস্টফুড খাওয়া।
খাবারে ফাইবারের পরিমাণ কম থাকা।
অতিরিক্ত মানসিক চাপ, উৎকন্ঠা।
বৃহদন্তের পেশী দুর্বল হয়ে যাওয়া।
কোলন প্রদেশে কোনও রকম সমস্যা হলে ইত্যাদি।

কোষ্ঠবদ্ধতা থেকে মুক্তি পেতে গেলে প্রত্যহ দৈহিক পরিশ্রম অত্যন্ত জরুরী। আটার রুটি, শাকসব্জি, ফল, বাদাম, খেজুর ইত্যাদি খাদ্য তালিকায় রাখতে হবে।
মিষ্টি, কেক, ময়দার খাবার, আতপচাল যতটা বর্জন করা যায় ততই মঙ্গল।

খাদ্য তালিকায় স্যালাড রাখা অত্যন্ত জরুরি।
খাদ্যে পরিমিত পরিমাণে ফ্যাট বা চর্বি কোষ্ঠবদ্ধতায় আক্রান্ত রোগীরা গ্রহণ করতে পারেন।
এছাড়াও টাটকা ফলের রস ও সব্জির স্টু অথবা সুপ কোষ্ঠবদ্ধতা নিরাময়ে সাহায্য করে।

কোষ্ঠবদ্ধতার জন্য কিছু কিছু হোমিওপ্যাথি ওষুধ আছে যেগুলি এই রোগ নিরাময়ের ক্ষেত্রে কার্যকরী ভূমিকা পালন করে।
বারে বারে নিস্ফল মলত্যাগের ইচ্ছা অর্থাৎ বেগ আসছে কিন্তু মল নিষ্ক্রমণ হচ্ছে না এমতাবস্থায় নাক্সভোম পরম উপকারী বন্ধু।
মলত্যাগের কোনও ইচ্ছা ও বেগ নেই, বিশেষত বয়স্ক মানুষদের যারা অত্যন্ত বেশি ল্যাক্সেটিভ ব্যবহার করেছেন তাদের জানিয়ে রাখি ওপিয়াম ঔষধটি ব্যবহার করে দেখুন, মনে মনে নিশ্চয় আমায় ধন্যবাদ দেবেন।

মলের প্রথমভাগটি অত্যন্তশক্ত, বেরোতে খুব কষ্ট হয়, ব্রায়োনিয়া আপনাকে উপশম দিতে পারে।
যে সকল বাচ্চারা মায়ের বুকের দুধ না খেয়ে ডিবের দুধ খেয়ে বড় হয়, তারা কোষ্ঠবদ্ধতার শিকার হয়ে পড়ে, তাদের ক্ষেত্রে এলুমিনা অত্যন্ত ভালো কাজ করে।
মল খুব শক্ত, বেরোতে গেলে মনে হয় মলদ্বার ফেটে যাবে, এমতাবস্থায় থুজা ওষুধটি আপনাকে নিরাশ করবে না।
হাইড্রাসটিস-Q হালকা গরম জলে সেবন করলে কোষ্ঠবদ্ধতা দূর হয়।

এছাড়াও ক্যাসকারা স্যাগ্রাডা ঔষধটিও কোষ্ঠবদ্ধতা নিরাময়ে ভালো কাজ করে।

এছাড়াও লক্ষণ ভেদে আরও অনেক হোমিওপ্যাথি ওষুধ আছে যেগুলি এই রোগ নিরাময়ের ক্ষেত্রে কার্যকরী ভূমিকা পালন করে কিন্তু সেগুলি প্রয়োগের আগে অবশ্যই একজন হোমিওপ্যাথি ডাক্তারবাবুর সঙ্গে আলোচনা করে নেওয়া আবশ্যক।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here