বিদ্যাসাগর বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্ভিদবিদ্যা বিভাগের অধ্যাপক সম্মানিত

জে মাহাতো, আমাদের ভারত, মেদিনীপুর, ২৭ জুলাই:
প্ল্যান্ট টেক্সোনমি জীববৈচিত্র, বিজ্ঞান ও সমাজের কাজে উল্লেখযোগ্য অবদান থাকায় সোসাইটি ফর বায়োটিক এন্ড এনভারমেন্টাল রিসার্চ (এস বি ই আর) থেকে সম্মানিত ফেলোশিপের জন্য নির্বাচিত হলেন বিদ্যাসাগর বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্ভিদবিদ্যা বিভাগের অধ্যাপক ড: অমল কুমার মন্ডল। আন্তর্জাতিক স্তরের এই সম্মানে স্বভাবতই খুশি বিভাগের সহকর্মী, ছাত্র-ছাত্রী, গবেষক-গবেষিকা তথা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড: রঞ্জন চক্রবর্তী।

২০০৬ সাল থেকে জীব বৈচিত্রের অন্যতম প্রাণকেন্দ্র দিঘা – মন্দারমনি – সুন্দরবন সহ সংশ্লিষ্ট এলাকায় পরিবেশের ভারসাম্যের সঙ্গে জীব বৈচিত্রের সাযুজ্য রক্ষার ক্ষেত্রে  তার অবদানের জন্য এই বিশেষ সম্মান। এই বিষয়ে পশ্চিমবাংলার দক্ষিণ-পশ্চিম অংশের পাঁচটি জেলা মূলত পুরুলিয়া, বাঁকুড়া, পশ্চিম মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রাম এবং পূর্ব মেদিনীপুর ওই এলাকাগুলিতে জীববৈচিত্রের উপর কাজ করে অমল বাবুর কাছে ইতিমধ্যে ১০ থেকে ১২ জন গবেষক সম্মানিত হয়ে বিভিন্ন জায়গায় কর্মরত রয়েছেন।

বোটানি এবং ফরেস্টের অধ্যাপক অমলবাবু জানিয়েছেন, সম্প্রতি এসবিইআরের এডভাইসর অর্ধেন্দু চক্রবর্তীর কাছ থেকে তিনি এই ফেলোশিপ সংক্রান্ত একটি চিঠি পান। ২০১১ সালে অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্নে অনুষ্ঠিত পঞ্চবার্ষিক বিশ্ব উদ্ভিদবিদ্যা বিষয়ক বিশ্ব সম্মেলনে আলোচক হিসেবে আমন্ত্রিত ছিলেন ড: অমল কুমার মন্ডল। তাঁর নেতৃত্বে পশ্চিমবঙ্গ থেকে সেবছর পাঁচ সদস্যের গবেষকদের একটি দল মেলবোর্ন গিয়েছিলেন।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here