পুজোর আগেই শহরের রাস্তায় হুডখোলা দোতলা বাস, আজ উদ্বোধন মুখ্যমন্ত্রীর

রাজেন রায়, কলকাতা, ১৩ অক্টোবর: বহুদিন আগে বাম আমলে ডবল ডেকার বাস চলত কলকাতার রাস্তায়। কিন্তু পরবর্তীকালে বিভিন্ন রাস্তা এবং ব্রিজে সমস্যার কারণে তা ২০০৫ সালের পর শহরের রাস্তা থেকে উধাও হয়ে গিয়েছিল। এবার সেই নস্টালজিয়াকেই নতুন রূপে ফিরিয়ে আনতে চাইছে রাজ্য পরিবহণ দফতর। আজ, মঙ্গলবার থেকে ফের শহরের রাস্তায় নামতে চলেছে হুডখোলা ডবল ডেকার নীল-সাদা বাস। লণ্ডনের সিটি ট্যুরের বাসের আদলে প্রায় ১৫ বছর বাদে ফের শহরের রাস্তায় ফিরছে সেই দোতলা বাস। আজ, মঙ্গলবার সেই বাস উদ্বোধন করছেন মুখ্যমন্ত্রী।

প্রসঙ্গত, শেষবার সরকারি ভাবে শহরের রাস্তায় দোতলা বাস চলেছিল ২০০৫ সালে। তারপর ফের ২০২০ সালে চালু হতে চলেছে। কিন্তু তা যাত্রী পরিবহণের জন্য নয়। এই বাস চলবে পর্যটন ও শহর ঘুরে দেখানোর জন্য। আপাতত এই বাসগুলি চালাবে পশ্চিমবঙ্গ পর্যটন উন্নয়ন নিগম। তবে বাসের ড্রাইভার ও কনডাক্টর দেবে রাজ্য পরিবহণ নিগম।

জানা গিয়েছে, এই অত্যাধুনিক বাসগুলি বছর খানেক আগে কিনেছিল পরিবহণ নিগম। এই দুটি বাস কিনতে রাজ্যের খরচ পড়েছে প্রায় ৯০ লক্ষ টাকা।জামসেদপুরের বেবকো সংস্থা এই বাস দুটি তৈরি করেছে।
সেই বাসগুলি এবার পরিবহণ নিগম পর্যটন নিগমের হাতে তুলে দিল। তবে কোন রুটে, কীভাবে, কত ভাড়ায় এই বাস চলবে, তা এখনও স্পষ্ট নয়। কারণ, এই সব কিছু এখনও ঠিক হয়নি।

নিগমের চেয়ারম্যান তথা মন্ত্রী গৌতম দেব বলেন, ‘মুখ্যমন্ত্রী উদ্বোধন করার পরেই সবকিছু ঠিক হবে। আপাতত কলকাতার পর্যটনকে আরও আকর্ষণীয় করে তুলতে এই বাস চালানো হচ্ছে। জানা গিয়েছে, এই অত্যাধুনিক বাসে সিসিটিভি, প্যানিক বাটন, অটো ডোর সবই থাকবে। বাসের একটিই দরজা খুলে ভিতরে ঢুকে উপরে সিঁড়ি দিয়ে উঠতে হবে। মোট আসন রয়েছে ৫০-৫২টি, তার মধ্যে গোট ১৮ ওপরের তলায়। ওপরে থাকবে স্বচ্ছ আবরণ, যা প্রয়োজন মত খুলে দেওয়া যাবে।

ইতিহাসের পাতা ঘাঁটলে জানতে পারা যাবে, কলকাতার রাস্তায় প্রথম দোতলা বাস চলে ১৯২৬ এ। স্বাধীনতার পর তৈরি হয় সিএসটিসি, প্রথম দোতলা বাস পথে নামায় এই সরকারি পরিবহণ সংস্থা। বাম আমলের শেষ দিকে ২০০৫ নাগাদ বন্ধ হয়ে যায় এই দোতলা বাস। স্মারক হিসাবে নিউটাউনের ইকো পার্কে রয়েছে একটি নীল সাদা দোতলা বাস। ডিসেম্বর, জানুয়ারিতে এই দোতলা বাসটি মূলত পর্যটকদের জন্য চালানো হয়। এবার ফের পাকাপাকি ভাবে শহরের রাস্তায় নামতে চলেছে হুডখোলা ডবল ডেকার বাস।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here