খাদ্যমন্ত্রীর বিলি করা খাবারে মশা, সোশ্যাল মিডিয়ায় ছবি পোস্ট করায় গ্রেফতার গৃহবধূ

সুশান্ত ঘোষ, আমাদের ভারত, উত্তর ২৪ পরগনা, ২৯ এপ্রিল: খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের বিলি করা খাবারে মশা। কমিউনিটি কিচেন নিয়ে ফেসবুকে পোস্ট করে প্রতিবাদ করার এক গৃহবধূকে গ্রেফতার করল হাবড়া থানার পুলিশ। ধৃত গৃহবধূর নাম পম্পা সাধুখাঁ। ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর ২৪ পরগনায় কইপুকুরে এলাকায়।

স্থানীয় সূত্রের খবর, পম্পা সাধুখাঁ নামে ওই গৃহবধূ কমিউনিটি কিচেন থেকে খাবার সংগ্রহ করেন। খাবারটি খোলার পর দেখতে পান তার মধ্যে একটা মশা পড়ে আছে। সে তখনই মোবাইলে ছবি তুলে দিল্লিতে বসবাসকারী তার দিদি মাম সাহার কাছে হোয়াটসঅ্যাপে ছবিটি পাঠায়। এরপরে দিদি মাম সাহা ফেসবুকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের নামে কটুক্তি ও তাদের কথপোকথনের মধ্যে দিয়ে প্রতিবাদ করেন। এই ঘটনার ভিত্তিতে মঙ্গলবার রাতে হাবড়ার সুভাষ রোডে পম্পার বাপের বাড়ি থেকে তাকে গ্রেফতার করে হাবড়া থানার পুলিশ।

যদিও এই ব্যপারে হাবড়ার প্রাক্তন চেয়ারম্যান নীলিমেষ দাসের অভিযোগ, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অনুপ্রেরণায়, হাবড়ার বিধায়ক ও রাজ্যের খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের নিজের প্রচেষ্টায় কল্পতরু কমিনিটি কিচেনের মধ্যে দিয়ে প্রতিদিন সাড়ে পাঁঁচ হাজার মানুষের বাড়িতে রান্না করা খাবার পৌছে দিচ্ছেন। তিনি স্বীকার করেন অভিযুক্ত পম্পা সাধুখাঁর খাবারে মশা
পড়েছিল। পম্পাদেবী অভিযোগ করার পর সেটি পাল্টে দেওয়াও হয়। তার পরেও তিনি ফের অভিযোগ করেন। এমনকি সোশ্যাল মিডিয়া তার দিদির দিল্লি থেকে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের নামে কুটুক্তি করেন ও বাজে ভাষায় মন্তব্য করেন। এই অভিযোগে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করেছে।

বিজেপি নেতা বিপ্লব হালদার বলেন, মানুষের গণতান্ত্রিক অধিকারকে খর্ব করা হচ্ছে। যখনই তাদের বিরুদ্ধে মন্তব্য করা হয় তখনই ভারতীয় জনতা পার্টির বিরুদ্ধে অপবাদ দেওয়া হয়। তৃণমূল অতি সক্রিয়তা দেখাচ্ছে পুলিশকে দিয়ে। পুলিশ এমন অনেক ঘটনায় নিরব থাকছে। জখনই সত্য ঘটনা তুলে ধরে প্রতিবাদ করেছে তাই তার বাড়ি গিয়ে পুলিশ চড়াও হয়ে তাকে হয়রানি করেছে। ধৃত গৃহবধূকে বুধবার বারাসাত আদালতে তোলা হয়।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here