পরকীয়া প্রেমের বলি গৃহবধূ

আমাদের ভারত, পূর্ব মেদিনীপুর, ১২ জানুয়ারি : প্রেমের বলি হতে হল এক গৃহবধূকে। গৃহবধূর গলার নলি কেটে পালিয়ে যায় প্রেমিক। পরে পুলিশ তল্লাশি চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করে। আজ সকাল দশটা নাগাদ তমলুক শহরের এক নম্বর ওয়ার্ডের আবাসবাড়ির চরে গলার নলিকাটা এক গৃহবধূর মৃতদেহ নিয়ে চাঞ্চল্য ছড়ায়। খুন হওয়া মহিলার নাম মানসি পতি (রানা)।

প্রতিবেশীদের কাছ থেকে জানাগেছে, দিন পাঁচেক আগে সনাতন জানা নামে এক ব্যক্তি ওই গৃহবধূকে নিয়ে এসে বাসা ভাড়া নিয়ে থাকতে শুরু করে। নিজেদেরকে স্বামী-স্ত্রী পরিচয় দেয় এলাকায়। আজ সকালে গৃহবধূটি চিৎকার করতে করতে বাড়ির পাশে রাস্তায় গিয়ে পড়ে যায়। চিৎকার শুনে স্থানীয়রা গিয়ে দেখে গৃহবধূ রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে আছে। গলার নলি কাটা। তমলুক থানায় খবর দিলে পুলিশ এসে মৃতদেহ তুলে ময়নাতদন্ত পাঠিয়েছে।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, মানসী এবং সনাতন দুজনেই আগে থেকেই বিবাহিত। দুজনেরই ছেলেমেয়ে আছে। পরে মানসী এবং সনাতন দুজনেই প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে। কিছুদিন আগে দুজনে বাড়ি থেকে পালিয়ে এসে এই আবাস বাড়ির চরে ঘর ভাড়া নিয়ে থাকতে শুরু করে। আজ সকালে গৃহবূধর সঙ্গে বসবাস করা প্রেমিক খুন করার পর পালিয়ে যায়। পরে ঘটনার তদন্তে নেমে পুলিশ প্রেমিককে গ্রেপ্তার করে। মৃতদেহ দেখে পুলিশের প্রাথমিক অনুমান গলার নলি কেটে পালিয়ে যায় প্রেমিক। সেই কারণেই মহিলার মৃত্যু হয়েছে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here