চোখের সামনে জ্বলন্ত দগ্ধ স্বামী, চেষ্টা করেও প্রাণ বাঁচাতে অপারগ স্ত্রী পুত্র

রাজেন রায়, কলকাতা, ৭ আগস্ট: চোখের সামনে পরিবারের কর্তাকে এভাবে জ্বলন্ত দগ্ধ দেখতে হবে, তা আশা করেনি সার্ভে পার্কের রায় পরিবার। নিজেদের প্রাণ কোনও ভাবে বাঁচাতে পারলেও হাজার চেষ্টা করেও বাবাকে বাঁচাতে পারলেন না তাঁর ছেলে। আর্তনাদ করেও চোখের সামনে জ্বলন্ত দগ্ধ স্বামীকে দেখতে হল স্ত্রীকে। শুক্রবার সকালে মর্মান্তিক এই ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব কলকাতার সার্ভে পার্ক এলাকায়।

পুলিশ জানিয়েছে, মৃত বৃদ্ধের নাম প্রদীপ রায়। সার্ভে পার্কের সন্তোষপুর এলাকার নন্দনকাননে স্ত্রী, পুত্রকে নিয়ে থাকতেন অবসরপ্রাপ্ত ওই ব্যক্তি। তাঁর ঘুমোনোর ঘরেই রাখা থাকত গ্যাস সিলিন্ডার। শুক্রবার সকালে যখন তাঁর ঘরটিতে আগুন লাগে, তখনও ঘুমোচ্ছিলেন তিনি। আচমকাই তার ঘরে কোনভাবে আগুন লেগে যায়। ঘুম থেকে উঠে চোখের সামনে আগুন দেখেও বেরিয়ে আসতে পারেননি তিনি। কারণ সম্পূর্ণ ঘরটিকে গ্রাস করে আগুন ধেয়ে এসেছিল তার দিকে।

এদিকে আসবাবপত্র পোড়ার ধোঁয়ার কারণে ঘরের ভিতরই অচৈতন্য হয়ে পড়ে যান ওই বৃদ্ধ।এর মধ্যে হঠাৎই ঘরের ভিতরে থাকা গ্যাস সিলিন্ডার ফেটে হুড়মুড়িয়ে দেওয়াল ভেঙ্গে পড়ে। ফলে ওই অবস্থাতেই জ্বলন্ত দগ্ধ হয়ে মৃত্যু হয় প্রদীপ বাবুর।

দমকলের দুটি ইঞ্জিন আগুন নেভানোর কাজ শুরু করে। ঘটনাস্থলে আসে সার্ভে পার্ক থানার পুলিশও। কিছুক্ষণের মধ্যেই আগুন দমকলের আয়ত্বে আসে। অগ্নিদগ্ধ অবস্থায় বৃদ্ধকে ঘর থেকে বের করে বাঘাযতীন স্টেট জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানেই তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here