তৃণমূল এবং পুলিশ যদি বিজেপি নেতাদের ফোন ট্যাপ করে তাহলে বিজেপিরও ক্ষমতা আছে তাদের ফোন ট্যাপ করার: সায়ন্তন বসু

জে মাহাতো, আমাদের ভারত, ঝাড়গ্রাম, ১৮ জুলাই: তৃণমূল এবং পুলিশ যদি বিজেপি নেতাদের ফোন ট্যাপ করে তাহলে বিজেপিরও ক্ষমতা আছে আপনাদের ফোন ট্যাপ করার। শনিবার ঝাড়গ্রামে বিজেপির ডেপুটেশন ও অবস্থান-বিক্ষোভ কর্মসূচিতে যোগ দিয়ে একথা বললেন বিজেপির রাজ্য সাধারণ সম্পাদক সায়ন্তন বসু।

সায়ন্তন বসু এদিন বলেন, করোনা পরিস্থিতিতে কাউকেই বিদ্যুতের বিল দিতে হবে না। আমাদের সরকার ক্ষমতায় এলেই বিদ্যুৎ বিল মকুব করব আমরা। রাজ্যজুড়ে শাসক দলের সন্ত্রাস, বিজেপি কর্মীদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দেওয়া ও দলীয় কর্মী খুনের প্রতিবাদে শনিবার জেলাশাসকের দপ্তরে ঝাড়গ্রাম জেলা বিজেপির পক্ষ থেকে ডেপুটেশন ও অবস্থান বিক্ষোভ কর্মসূচি নেওয়া হয়। এদিনের কর্মসূচির নেতৃত্বে ছিলেন সায়ন্তন বসু। ঝাড়গ্রাম জেলা বিজেপি পার্টি অফিস থেকে মিছিল শুরু হয়ে ঝাড়গ্রাম শহরের মেন রাস্তা দিয়ে জেলাশাসকের অফিসের উদ্দেশ্যে রওনা হয়। বিজেপির মিছিল ঝাড়গ্রাম শহরের প্রাণকেন্দ্র পাঁচমাথা মোড় পৌঁছতে ঝাড়গ্রাম জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে ব্যারিকেড করে মিছিল আটকে দেওয়া হয় পাঁচমাথা মোড়ে। ডেপুটেশন দেওয়ার জন্য বিজেপি কর্মীদের জেলা শাসকের অফিস যেতে দেওয়া হয়নি। পুলিশের সঙ্গে বিজেপি কর্মীদের কথা কাটাকাটি হলেও অপ্রীতিকর কোনো ঘটনা ঘটেনি।

ঝাড়গ্রাম শহরের পাঁচমাথার মোড়ে সায়ন্তন বসুর নেতৃত্বে বিজেপির নেতারা বক্তব্য রাখেন। সায়ন্তন বসুর সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন ঝাড়গ্রামের বিজেপি সাংসদ কুনার হেমব্রাম এবং ঝাড়গ্রাম জেলা বিজেপির সভাপতি সুখময় সৎপতি ও জেলা সাধারণ সম্পাদক অবনী ঘোষ। দীর্ঘক্ষণ বিজেপি নেতারা বক্তব্য রাখার পর জেলাশাসককে ডেপুটেশন না দিয়েই ফিরে যায়। 

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here